লেখাপড়া শেষে উদ্যোক্তা হতে হবে: দীপু মনি

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, লেখাপড়া শেষে চাকরি খুঁজলে হবে না, উদ্যোক্তা হতে হবে। শিক্ষার্থীরা অন্যের জন্য কাজ তৈরি করে দেবে।

শুক্রবার রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে আন্তঃকলেজ ক্রীড়া প্রতিযোগিতা-২০১৯-এর পুরস্কার বিতরণ এবং আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় ক্রীড়া প্রতিযোগিতা-২০১৬ ও ২০১৭-এর কৃতী ক্রীড়াবিদদের সনদ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, দেশের সবচেয়ে বড় এই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মান নিশ্চিত করতে এখন কাজ করতে হবে। শিক্ষার্থীরা যেন শুধু ডিগ্রির জন্য কলেজে না আসে। তারা যেন সত্যিকার অর্থে শিক্ষাগ্রহণ করে সুনাগরিক হতে পারে, স্বাবলম্বী হয়। তাদের মধ্য থেকে যোগ্য নেতৃত্ব যেন উঠে আসে সেই শিক্ষা দিতে হবে শিক্ষার্থীদের।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, ‘বাংলাদেশের শিক্ষা নিয়ে অনেকেই সমালোচনা করেন; কিন্তু জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় হতে পারে সেই সমালোচনার জবাব। কারণ এ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে আছে ২৮ লাখ শিক্ষার্থী, যা বিশ্বের অনেক দেশের জনসংখ্যার চেয়ে বেশি। এটিকে আমাদের কাজে লাগাতে হবে। শিক্ষার মান উন্নয়ন করে গতিশীল নেতৃত্ব তৈরি করতে হবে।’

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-অর-রশিদ। সভাপতির বক্তব্যে উপাচার্য বলেন, ‘জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কেবল গাজীপুরের বোর্ডবাজারে অবস্থিত এক টুকরো ভূখণ্ড নয়। এটি বাংলাদেশের মানচিত্র। সারদেশব্যাপী এর পরিসর। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৬ বছরের ইতিহাসে আন্তঃকলেজ ক্রীড়া প্রতিযোগিতা আর কখনও হয়নি। এটিই প্রথম।’ তিনি জানান, বেসরকারি কলেজের মধ্যে মডেল কলেজ তৈরির পরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে।

স্বাগত বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমান।

উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূরসহ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তারা।

অনুষ্ঠান শেষে আন্তঃকলেজ প্রতিযোগিতায় চূড়ান্ত পর্বে বিজয়ীদের মধ্যে সনদ ও পুরস্কার বিতরণ করেন শিক্ষামন্ত্রী। এ পর্বে ছেলেমেয়ে উভয় গ্রুপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে খুলনার বিএল কলেজ। ছেলেদের গ্রুপে রানার্সআপ হয়েছে খুলনার খান জাহান আলী ডিগ্রি কলেজ। আর মেয়েদের গ্রুপে সিলেট সরকারি মহিলা কলেজ রানার্সআপ হয়েছে।

কমেন্টসমুহ
BD Life BD Life

Top