টাকা পুড়িয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদন!

এ যেন টাকা দিয়ে আলো কেনা। আক্ষরিক অর্থেই টাকা পুড়িয়ে আলোর দেখা পাচ্ছেন চীনের নাগরিকরা। দেশটির পূর্বাঞ্চলে ইয়ানচেন শহরে বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে পোড়ানো হচ্ছে ১০০ টাকার পুরোনো নোট! চলতি বছরেই পোড়ানো হয়েছে ১ হাজার ৮০০ টন ব্যাংক নোট, ১৮০ বিলিয়ন ইউয়ান। বাংলাদেশি টাকায় যার মূল্য ২১ লাখ কোটিরও বেশি! তবে এতোটা চমকানোর কিছু নেই। কারণ, পুড়িয়ে ফেলা ব্যাংক নোটগুলো আদতে অচল। ১০০ ইয়ানের এই নোটগুলোর পরিবর্তে এখন নতুন ডিজাইনের নোট বাজারে এসেছে।

তাই এগুলো এখন আর কাগজের টুকরো ছাড়া কিছু নয়। কাগজের টুকরোকে কাজে লাগিয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদনের এই অভিনব পদ্ধতিটি বের করেছে বায়োম্যাস পাওয়ার কোম্পানি নামে একটি বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান।

৩০ টন নোটের সঙ্গে তারা খড় ব্যবহার করে বিদ্যুৎ উপন্ন করে থাকে। নভেম্বরের ১২ তারিখ চীন ১০০ ইয়ানের জন্য নতুন নোট বাজারে ছাড়ে। আর পুরাতন নোটগুলো ইয়ানচেন শহরে পাঠিয়ে দেওয়া হয় যেন সেখান থেকে বিদ্যুৎ উৎপন্ন করা যায়। মূলত: ওজনের উপর নির্ভর করে কতটা বিদ্যুৎ উৎপন্ন করা যাবে। ইনসিনারেটরে পাঠানোর আগে এগুলোকে ছোটো বলের মতো তৈরি করা হয়। জ্বালানি প্রকৌশলী জু হংয়েই বলেন, ‘প্রত্যেকটি ট্রাক ৩০ টন ওজনের এই কাগজ নিতে পারে। টাকার হিসেবে যা দাড়ায় ৩০৭ মিলিয়ন পাউন্ড। এই পরিমাণ কাগজ দিয়ে ৩০ হাজার কিলোওয়াট বিদ্যুৎ উৎপন্ন করা সম্ভব।  শহরটিতে বাড়িগুলোতে প্রতিমাসে গড়ে ১০০ কিলোওয়াট বিদ্যুৎ ব্যবহৃত হয়।

2EA1FE0000000578-0-image-a-2_1448016920482

অর্থাৎ একটি ট্রাক দিয়ে একটি বাসার ২৫ বছরের বিদ্যুৎ সরবরাহ সম্ভব।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top