বুদ্ধি মাপার ফর্মুলা!

আপনি কী নিজেকে বুদ্ধিমান বা বুদ্ধিমতী ভাবেন? আর অন্য কারওকে বোকা? বা উল্টোটা? সে আপনি ভাবতেই পারেন। আমরা সবাই নিজের মতো করে কে বুদ্ধিদীপ্ত আর কে বোকা তা তো ঠিক করে নিই অনেক সময়ই। কিন্তু সেটা তো বিজ্ঞান সম্মত নয়। জানেন কী, বুদ্ধি মাপার বিজ্ঞানসম্মত সূত্র মানে ফর্মুলা রয়েছে। সেই ফর্মুলাটা জানানোর জন্যই তো এই লেখাটার অবতারণা।

‘IQ’, এই কথাটা নিশ্চই শুনেছেন। আসলে এটা একটা সংক্ষিপ্ত রূপ। পুরো কথাটা হল- Intelligence Quotient. বাংলায় একে বলে ‘বুদ্ধঙ্ক’। যার আই কিউ যত, সে ততই বুদ্ধি ধরে। আইকিউ বেশী হলে বুদ্ধি বেশী, আইকিউ কম হলে বুদ্ধি কম, সোজা হিসেব। কিন্তু আইকিউ মাপবেন কী করে তাই তো? বলছি…বলছি…

আইকিউ মাপার সূত্র হল- আপনার মানসিক বয়স / আপনার আসল বয়স (জন্ম থেকে আজ অবধি আপনার যতটা বয়স হয়েছে) X ১০০। মানে, আপনার মানসিক বয়সকে আপনার আসল বয়স দিয়ে ভাগ করে ভাগফলকে ১০০ দিয়ে গুন করতে হবে। আর তাহলে যে ফল পাবেন সেটাই আপনার আইকিউ, মানে ততটাই আপনার বুদ্ধি।

এখন প্রশ্ন হল, আপনার মানসিক বয়স কত সেটা জানবেন কী করে? জানতে হলে আপনাকে পরীক্ষা করে দেখতে হবে যে আপনার সাধারণ বুদ্ধি বা পাজ্যল সলভ করার ক্ষমতা কত বছর বয়সীদের মতো, আর সেটাই আপনার মানসিক বয়স।

উপরের ওই ফর্মুলায়, আপনার আইকিউ যদি ১০০ বা তার ১৫ কম-বেশী হয়, তাহলে আপনি স্বাভাবিক ভাবে বুদ্ধিমান। ১০০ থেকে যত বেশী হবে এই ফলাফল ততটাই বেশী বুদ্ধি আপনার, আর কম হলে ততটাই কম।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top