সিঁড়ি দিয়ে নামার সময় ধোঁয়ায় শ্বাসরুদ্ধ হয়ে মারা যান ইয়াসমিন

বনানীর এফআর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের সময় সিঁড়ি দিয়ে নামার সময় শ্বাসরুদ্ধ হয়ে মারা যান কমলগঞ্জের রামপাশা সৈয়দ বাড়ির মেয়ে সৈয়দা আমেনা ইয়াসমিন (৫০)।

তিনি ভবনের ৭ তলায় শ্রীলঙ্কান একটি কোম্পানির প্রশাসনিক কর্মকর্তা ছিলেন। আমেনা ইয়াসমিন বিমান বাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত ক্যাপ্টেন সৈয়দ মহিউদ্দীন আহমদের ছোট মেয়ে।

তারা দুই বোন ও এক ভাই। বড় বোন সৈয়দা আমেনা তাসনিম অর্থ মন্ত্রণালয়ে প্রশাসনিক পদে আর ভাই সৈয়দ মোস্তফা মাহমুদ আহমদ চট্টগ্রামে অডিট বিভাগে প্রশাসনিক পদে কর্মরত আছেন। তিন ভাই-বোনই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করছেন।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে তাদের গ্রামের বাড়িতে মাতম শুরু হয়। গ্রামের বাড়িতে ছোট চাচা সৈয়দ সালেহ আহমদ পরিবার-পরিজন নিয়ে বসবাস করেন।

শুক্রবার সকালে সালেহ আহমদ জানান, অগ্নিকাণ্ডের সময় সিঁড়ি দিয়ে নামার সময় ধোঁয়ায় শ্বাসরুদ্ধ হয়ে তার ভাতিজি ইয়াসমিন মারা যান। তাকে (ভাতিজি) বনানী কবরস্থানে দাফন করা হবে।।

তিনি আরও জানান, ইয়াসমিন অবিবাহিত। তিনি ঢাকার সেনানিবাস এলাকার কাফরুলে মা-বাবার সঙ্গে বসবাস করতেন।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top