প্রলয়ংকরী ঘূর্ণিঝড় ‘ফণীর’ কারণে দু’দিন রেল যোগাযোগ বন্ধ!

শুক্রবার বিকালের দিকে ভারতে আঘাত হানতে পারে ফনি। দেশটির ত্রাণ বিভাগের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, প্রায় ১০ লাখ মানুষের জন্য এক হাজারেরও বেশিসংখ্যক আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

এদিকে ভারতের বেসামরিক বিমানমন্ত্রী সুরেশ প্রাবু দেশটির সব বিমান সংস্থাকে অনুরোধ করছেন, ত্রাণ কাজ পরিচালনা ও উদ্ধারের জন্য সহযোগিতা করার জন্য। এছাড়া নাসা ফনির প্রতিমুহূর্তের অবস্থানের চিত্র সরবরাহ করছে।

প্রলয়ংকরী শক্তি নিয়ে ধেয়ে আসা ঘূর্ণিঝড় ফণীর তাণ্ডব থেকে রক্ষা পেতে দক্ষিণ ভারতে দু’দিন রেল যোগাযোগ বন্ধ রাখা হয়েছে।

সর্বশেষ পাওয়া সংবাদ অনুযায়ী, ইতিমধ্যে রেলের ৪৩টি শিডিউল বাতিল করা হয়েছে।

এ ছাড়া উপকূলীয় এলাকার বিমানবন্দরগুলোকে বাড়তি সতর্কতা নিতে বলা হয়েছে। দেশটির বেসামরিক বিমানমন্ত্রী এ নির্দেশনা জারি করেন। খবর ইকোনমিকস টাইমসের।

এদিকে ভারতের ওড়িশার ১৪টি জেলার প্রায় আট লাখ অধিবাসীকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ভারতের আবহাওয়া বিভাগের কর্মকর্তারা বলছেন, ঘূর্ণিঝড় ফনি আঘাত হানার পর উপদ্রুত এলাকায় বাতাসের গতিবেগ ঘণ্টায় ২০০ কিলোমিটার পর্যন্ত হতে পারে। ঘূর্ণিঝড়টি বর্তমানে ওড়িশা থেকে ৪০০ কিলোমিটার দূরে রয়েছে।

কমেন্টসমুহ
BD Life BD Life

Top