চাঁদাবাজির সময় দুই হাতি আটক, মাহুতদের কারাদণ্ড

রাজধানীর কারওয়ান বাজার এলাকায় হাতি নিয়ে বিভিন্ন দোকান থেকে টাকা তোলার সময় হাতিসহ দুজন মাহুতকে আটক করেছে র‌্যাব।

গতকাল শুক্রবার দুপুরে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানের সময় তাদের আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত দুই মাহুতকে দুই বছর করে কারাদণ্ড দেন ও হাতি দুটিকে চিড়িয়াখানায় পাঠান।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম বলেন, জনগণকে ভয় দেখিয়ে চাঁদাবাজি ও হয়রানির অভিযোগে দুই মাহুতকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়। পাশাপাশি বন্য প্রাণী সংরক্ষণ আইন অনুযায়ী হাতি দুটিকে উদ্ধার করে চিড়িয়াখানায় পাঠানো হয়।

র‌্যাবের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সড়কে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে বিদেশি পর্যটকবাহী গাড়িসহ অন্যান্য গাড়ি থামিয়ে ভেতরে (গাড়ি) হাতির শুঁড় ঢুকিয়ে চাঁদা দাবি করছিল মাহুত।

এ সময় বিদেশি পর্যটকরা আতঙ্কিত হয়ে সাহায্যের জন্য ‘পুলিশ’ ‘পুলিশ’ বলে চিৎকার করছিল। এ অবস্থা দেখে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং র‌্যাব-২-এর কর্মকর্তারা মাহুত দুজনকে রাস্তা ছেড়ে পাশে অবস্থান করার আদেশ দেন। কিন্তু তারা আদেশ অমান্য করে কারওয়ান বাজারের ভেতর ঢুকে পড়ে এবং চারটি প্রাইভেট কারের ক্ষতিসাধন করে। সাধারণ মানুষ ও র‌্যাবের টিম পিছু নিলেও তাদের থামানো যায়নি। একপর্যায়ে মাহুতরা হাতি দুটি নিয়ে হাতিরঝিলে ঢুকে পড়ে। পরে মধুবাগ এলাকায় তাদের থামতে বাধ্য করা হয়। এরপর আটক দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা দীর্ঘদিন ধরে হাতি নিয়ে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় বিচরণ করে ভয় দেখিয়ে চাঁদাবাজি করছিল।

কমেন্টসমুহ
BD Life BD Life

Top