মাছ বিক্রেতার কাছে ক্ষমা চাইলেন সেই এসিল্যান্ড

শুক্রবার এক ইউনিয়ন চেয়ারম্যান কাজি বদরুদ্দোজা এ বিষয়ে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন।

তিনি স্ট্যাটাসে লেখেন, রোববার সকালে ফেঞ্চুগঞ্জ পূর্ব বাজারে মাছ ব্যবসায়ী ও এসিল্যান্ডের মধ্যে একটি অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটে। বৃহস্পতিবার দুপুরে ফেঞ্চুগঞ্জ পূর্ব বাজারের ডাক বাংলোর ভূমি অফিসে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ নুরুল ইলসামের মাধ্যমে বিষয়টি মীমাংসা হয়। এই ঘটনায় এসিল্যান্ড দুঃখ প্রকাশ করে ক্ষমা চেয়েছেন বলে জানান তিনি। এ ছাড়া নতুন করে বিষয়টি সামনে না আনার জন্য দেশবাসী ও স্থানীয়দের কাছে অনুরোধ করেন তিনি।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে এসিল্যান্ড সঞ্চিতা কর্মকার বলেন, ঘটনাটি একেবারেই অনাকাঙ্খিত এবং এর জন্য তিনি অনুতপ্ত ও দুঃখিত। তাই স্থানীয় ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সামনে মাছ বিক্রেতার কাছে ক্ষমা চেয়ে বিষয়টি মীমাংসা করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত রোববার এসিল্যান্ড কার্যালয়ের গেটের পাশে বসে কয়েকজন মাছ বিক্রেতা মাছ বিক্রি করছিলেন। তখন অফিসে প্রবেশের সময় মাছের দূর্গন্ধে মেজাজ হারিয়ে ফেলেন সঞ্চিতা কর্মকার। মাছের ঝুড়ি সরানোর কথা বলার পাশাপাশি ক্ষুব্ধ হয়ে লাথি মারেন লায়েক আহমেদ নামের এক মাছ বিক্রেতার ঝুড়িতে। এতে ঝুড়ি থেকে মাছ পাশের ড্রেনে পড়ে যায়। পরে এই ঘটনায় স্থানীয় ব্যবসায়ীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং ঘটনার দ্রুত বিচার দাবি করেন।

কমেন্টসমুহ
BD Life BD Life

Top