চেটে দিল মহিলা, ফেলে দিতে হল ১ লাখ ৫৩ হাজার টাকার খাবার!

করোনাভাইরাস আতঙ্কে ভুগছে পুরো বিশ্ব। সংক্রমণ ঠেকাতে দেশে দেশে চলছে লকডাউন। ব্যবসা-বাণিজ্য, দোকানপাট সবই বন্ধ। তীব্র খাদ্য সঙ্কট এখনো দেখা না দিলেও বাজারে অনেক জিনিসেই টান পড়েছে। এরকম জটিল পরিস্থিতিতে প্রায় ১ লাখ ৫৩ হাজার টাকার নিত্যপণ্য নষ্ট হয়েছে যুক্তারাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায়। সুপারমার্কেটে ঢুকে এক মহিলা খাবার জিনিসপত্র চেটে দেওয়ায় ফেলে দিতে হয়েছে বিপুল পরিমাণ এই পণ্য। পুলিশ অভিযুক্ত মহিলাকে আটক করেছে।

সুপারমার্কেট কর্তৃপক্ষ পুলিশকে জানিয়েছে, দোকানে ঢুকে আচমকা ওই মহিলা গ্রসারি আইটেম বেছে বেছে চেটে দিচ্ছিলেন। ব্যাপারটা নজরে আসতেই ছুটে আসেন নিরাপত্তাকর্মীরা। মহিলাকে বারবার বারণ করা হয়। কিন্তু তাকে থামানোর সমস্ত চেষ্টাই বিফলে যায়। উল্টে মহিলা একই কাজ করতে থাকেন। এরপর একপ্রকার বাধ্য হয়েই পুলিশে খবর দেয় সুপারমার্কেট কর্তৃপক্ষ।

পুলিশ সুপারমার্কেটে পৌঁছলে কর্মীরা অভিযোগ করেন শুধু গ্রসারি আইটেম চেটে দিয়েই ক্ষান্ত হননি ওই মহিলা। বরং হানা দেন একটি গয়নার দোকানেও। দামি দামি পাথর বসানো গয়না তুলেও চাটতে শুরু করেন তিনি। তারপর দিব্যি সেগুলো নিয়ে কেটে পড়ার মতলব করছিলেন তিনি। পুলিশের হাতে মহিলাকে তুলে দেওয়ার পর সুপারমার্কেটের প্রায় সব জিনিসই ফেলে দেয় কর্তৃপক্ষ। স্যানিটাইজ করা হয় পুরো এলাকা।

সব দেখেশুনে হতভম্ব পুলিশও। মহিলাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কেন তিনি এমন অদ্ভুত আচরণ করেছেন তা জানার চেষ্টা চলছে। মহিলাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। পাশাপাশি অভিযুক্ত মহিলার কোনও মানসিক সমস্যা রয়েছে কিনা সেটাও দেখা হচ্ছে।

কয়েক সপ্তাহ আগে এমন অদ্ভুত কাণ্ড ঘটেছিল পেনসিলভ্যানিয়ায়। সেখানকার একটি সুপারমার্কেট প্রায় ২৬ লক্ষ টাকার সামগ্রী ফেলে দিতে বাধ্য হয়। কারণ দোকানে এসে কেবল মজা করার জন্য খাবার-দাবার এবং অন্যান্য জিনিসপত্রের উপর ইচ্ছে করে কাশি দিয়েছিলেন এক মহিলা। পেনসিলভ্যানিয়ার হ্যানোভা শহরের একটি সুপারমার্কেটে ঘটে এই ঘটনা। ওই মহিলাকেও গ্রেফতার করেছিল পুলিশ।

সূত্র- ইন্ডিয়া টাইমস।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top