ভিড় বাড়ছে শাড়ীর দোকানে

ঈদকে সামনে রেখে রাজধানীর বিভিন্ন মার্কেট ও শপিং মলগুলোতে পুরোদমে জমে উঠেছে কেনাকাটা। বড়-ছোট, তরুণ-তরুণী সবাই যেন নিজের সেরা পোশাকটি কিনতে কোনো রকম ঝুঁকি নিচ্ছেন না। দাম একটু বেশি হলেও কিনে নিচ্ছেন পছন্দের পোশাকটি।

মেয়েদের ঈদের কেনাকাটায় বিভিন্ন ডিজাইনের থ্রি পিসের পাশাপাশি শাড়ীর দিকেও রয়েছে বাড়তি নজর। ঈদের বিকেলে বন্ধুদের সঙ্গে শাড়ী পড়ে ঘুড়তে না গেলে অনেকের কাছে হয়তো ঈদের আনন্দই মাটি হয়ে যায়। তাই ঈদে সেরা শড়ীটি কিনতে শাড়ীর মাকের্টে তরুণীদের এখন উপচে পড়া ভিড়।

এবছর ঈদ গরম ও বর্ষার সময় হওয়ায় সুতি শাড়ী ও সফট সিল্ক শাড়ীর চাহিদা একটু বেশি। তাঁতের শাড়ীর কদর যেন আগের মতোই রয়েছে।

রাজধানীর বেইলি রোড, ধানমন্ডি হর্কাস মাকের্ট এবং মিরপুর বেনারসি পল্লীতে ঐতিহ্যবাহী তাঁতের কাপড় কিনতে তরুণী এবং গৃহিনীরা ভিড় করছে। সাধ ও সাধ্য অনুযায়ী তাতের কাপড় কিনে নিচ্ছেন ক্রেতারা। এছাড়াও জামদানি, টাঙ্গাইল শাড়ী, সিল্ক, কাতানও বিক্রি হচ্ছে প্রচুর।

আবার অনেক ফ্যামিলিতে ঈদকে কেন্দ্র করে বিয়ের অনুষ্ঠান থাকে সেসব ক্রেতারা বেছে নিচ্ছেন ভারতীয় বাহারি ডিজাইনের ভারি শাড়ী।

রাজধানীর বসুন্ধরা শপিং সিটি, গুলশান, বনানী নামাদামি ফ্যাশন হাউজ, মিরপুরের বেনারসি পল্লীসহ ধানমন্ডির নামিদামি শপিংমলগুলোতে এখন শুধু শাড়ী কিনতে অাসা ক্রেতাদের ভিড়।

রোবাবার ধানমন্ডির সীমান্ত স্কয়ার মাকের্ট ঘুরে দেখা গেলো পোশাকের দোকানের চেয়ে শাড়ীর দোকানে এখন বেশ ভিড়। ক্রেতারা বলছেন, রোজার প্রথম দিকেই থ্রি পিসসহ সব কেনাকাটা প্রায় শেষ হয়ে গেছে। এখন শুধু শাড়ী কেনা বাকি। দেশীয় শাড়ীর দাম একটু বেশি  হলে এর মান খুব ভালো।

শাড়ী বিক্রেতারা বলছেন, রোজার মাঝামাঝিতে এসে শাড়ীর বেচাকেনা আগের চেয়ে বেড়েছে। কাপড় এবং ডিজাইনের উপর ভিত্তি করে শাড়ীর দাম নির্ধারণ হচ্ছে। রোজার শেষদিকে এসে বিকিকিনি আরো বাড়বে বলে ধারণা করছেন বিক্রেতারা।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top