শুষ্ক ও সেনসিটিভ ত্বকের জন্য ঘরেই তৈরি করুন ফ্রুট ম্যাসাজ ক্রিম

ম্যাসাজ ক্রিম ত্বকের ভেতর থেকে ময়লা পরিষ্কার করে থাকে। তাই মাঝে মাঝে ম্যাসাজ ক্রিম দিয়ে মুখ, ঘাড় ম্যাসাজ করা অনেক বেশী উপকারী। বাজারের নানা প্রকারের ম্যাসাজ ক্রিম পাওয়া যায়। কিন্তু সব ম্যাসাজ ক্রিম সব ত্বকের জন্য ভাল না-ও হতে পারে। অন্য সব ত্বক থেকে সেনসিটিভ ত্বক অনেক আলাদা। তাই তাদের থাকতে হয় অনেক বেশী সচেতন। বাজারের ম্যাসাজ ক্রিম তাদের মানিয়ে না-ও যেতে পারে। তারা নিজেদের জন্য তৈরি করে নিতে পারেন ফ্রুট ম্যাসাজ ক্রিম। আসুন জেনে নেই কিভাবে ঘরে তৈরি করতে পারেন ফ্রুট ম্যাসাজ ক্রিম।

যা যা লাগবে

পেঁপে বা কমলার পেষ্ট
মাখন
কর্ণফ্লাওয়ার
মধু

যেভাবে তৈরি করবেন

  • ১ টেবিল চামচ মাখনের সাথে ১ টেবিল চামচ কর্ণফ্লাওয়ার ভাল করে মিশিয়ে চুলায় জ্বাল দিন। কিছুক্ষন পর নামিয়ে ফেলুন।
  • ৪/৫ টুকরা পেঁপে পিষে পেষ্ট করে নিন। পেঁপের পেস্টটি মাখন কর্ণফ্লাওয়ার পেষ্টের সাথে ভাল করে মিশিয়ে নিন।
  • এরপর ১ টেবিলচামচ মধু যোগ করে করুন।
  • এই ক্রিম ফ্রিজে ৮/ ১০ দিন পর্যন্ত এয়ার টাইট কনটেইনারে রেখে দিতে পারেন।

কীভাবে ব্যবহার করবেন

প্রথমে মুখ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এরপর ম্যাসাজ ক্রিম হাতে নিয়ে মুখের নিচ থেকে উপরের দিকে আস্তে আস্তে ম্যাসেজ করুন। আঙ্গুলের ডগা দিয়ে ম্যাসাজ করবেন। ম্যাসাজ করার সময় তাড়াহুড়ো করবেন না। আস্তে আস্তে ম্যাসাজ করবেন যাতে ক্রিম আপানর ত্বকের ভিতরে প্রবেশ করতে পারে। এভাবে ৫ মিনিট ম্যাসাজ করুন। এরপর ভেজা তুলা দিয়ে মুখ মুছে ফেলুন। তারপর ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

কীভাবে কাজ করে

পেঁপে মধু, মাখনে রয়েছে এনজাইম যা ত্বককে এক ধরণের আলাদা গ্লো দেয়। প্রতিদিন ব্যবহারে আপানার ত্বককে ভেতর থেকে পুষ্টি প্রদান করে ত্বককে করে তোলে মসৃণ এবং উজ্জল।

রেফারেন্সঃ Fruit Face Massage Cream for Glow and Rejuvenation

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top