পথচারীদের সহায়তায় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হলেন তরুণী

ঠিক সিনেমার মতো। কাউন্সেলিং ছিল কোয়েন্বাটোরের তামিলনাড়ু এগ্রিকালচারাল ইউনিভার্সিটিতে। কিন্তু, মুসৌরির এক অত্যন্ত দরিদ্র ঘরের মা ও মেয়ে ভুল করে চলে যান চেন্নাইয়ের আন্না ইউনিভার্সিটিতে। কাউন্সেলিং শুরু হওয়ার কথা ছিল সকাল আটটা ৩০ মিনিটে। আর তার অনেক আগেই ভোর সাড়ে ছ’টা নাগাদ পৌঁছে যায় তাঁরা। কিন্তু, ঠিকানা জিজ্ঞেস করতেই ভুল ভাঙে। বুঝতে পারেন, তাঁরা ভুল জায়গায় চলে এসেছেন৷আশা ছেড়ে দেন তাঁরা।

কিন্তু, কিছক্ষণের মধ্যেই আশার আলো দেখতে পান। সাহায্যের জন্য হাত বাড়িয়ে দেন পথচারীরা। তাঁদের কেউ আন্না ইউনিভার্সিটির শিক্ষক আবার কেউ অন্য পেশার সঙ্গে যুক্ত। শুধু সহানুভূতি দেখানোর বদলে কেউ চলে যান বিমানের টিকিট কাটতে, কেউ ফোন করেন তামিলনাড়ু এগ্রিকালচারাল ইউনিভার্সিটিতে। আবার কেউ মা ও মেয়ের জন্য খাবার নিয়ে আসেন। সব কিছুর খরচও বহন করেন তাঁরাই। আর সকাল ১০ টা পাঁচ মিনিটে চেন্নাই ছাড়তে সক্ষম হন তিরুচির বাসিন্দা থাঙ্গাপন্নু ও তাঁর মেয়ে। আর সকাল সাড়ে ১১টা নাগাদ কোয়েম্বাটোর ক্যাম্পাসে পৌঁছে যান তাঁরা। আর এক ঘণ্টার মধ্যেই বি টেক বায়োটেকনোলজি কোর্সের জন্য ভর্তির ছাড়পত্র পেয়ে যায় সে। এটাকে অলৌকিক বলে উল্লেখ করার পাশাপাশি চেন্নাইয়ের পথচারীদের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। কলকাতা

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top