সিটিও নিজেই গ্রামীণফোনের ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারেননি!

গত সপ্তাহে খুব ঘটা করে নতুন ইন্টারনেট সেবা “ইজিনেট” চালু করে গ্রামীণফোন। মূলত এখনো যেসব গ্রাহক ইন্টারনেটের সঙ্গে যুক্ত হয়নি তাদের কথা মাথায় রেখে ইজিনেট প্যাকেজ চালু করেছিল গ্রামীণফোন। কিন্তু গ্রামীণফোনের ইন্টারনেট সেবার মান এতোই খারাপ যে, প্রতিষ্ঠানটির চিফ টেকনিক্যাল অফিসার (সিটিও) মেধাত আল হুসাইনী নিজেই ইজিনেট ব্যবহার করতে পারেননি।

স্থানীয় একটি হোটেলে সাংবাদিকদের কাছে ইজিনেটের ধারণা উপস্থাপনকালে গ্রামীণফোনের চিফ মার্কেটিং অফিসার (সিএমও) ইয়াসির আজমান বলেন, “ইজিনেট আমাদের গ্রাহকদের ইন্টারনেট সম্পর্কে জানতে সাহায্য করবে এবং তাদের জীবনকে এগিয়ে নেয়ার জন্য প্রয়োজনীয় জ্ঞানকে আরো শাণিত করবে।”

গ্রামীণফোনের ইন্টারনেট সেবা মানুষের জ্ঞানকে কতটা শাণিত করতে পারে, সেই খুশি দেখতে ঢাকা শহরের বিভিন্ন জায়গায় ইজিনেট ডেমো দেখতে বের হন প্রতিষ্ঠানটির সিটিও নিজেই। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্যি যে, তিনি যেখানেই গিয়েছেন কোথাও ইজিনেট ব্যবহার করা তো দূরের কথা, ঠিক মতো সিগনালই পান নি। মিশরীয় এই নাগরিক ক্ষুদ্ধ হয়ে নিজস্ব উচ্চারনে চিৎকার করে বলতে থাকেন, “ইউ তোল্ট মি, সিগনাল ইজ এভরিহুয়ার, বাত নাও হোয়ার ইজ ইওর সিগনাল”? (You told me, signal is every where, but now where is your signal?) যার বাংলা করলে দাড়ায় – তোমরা বলেছিলে সব জায়গায় সিগনাল আছে; তাহলে এখন সিগনাল কোথায়?

বেচারাকে খুশি করার জন্য তারপর দ্রুত কয়েকটি বিটিএস থেকে ইন্টারনেট সেবা সাময়িকভাবে ব্যবস্থা করে দেয়া হয়। উল্লেখ্য যে, ঢাকা শহরে গ্রামীণফোনের থ্রি-জি সেবা সবচে খারাপ বলে বিটিআরসি-সহ বিভিন্ন রিপোর্টে প্রকাশিত হয়েছে।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top