প্রচন্ড ক্ষুধায় ভুলেও খাবেন না যেসব খাবার

ক্ষুধা লাগলে কী কারও মাথা ঠিক থাকে? সামনে যা আছে তাই পেটে চালান করে দিতে ইচ্ছে হয়। কিন্তু এমন কিছু খাবার আছে যা এমন ক্ষুধার সময়ে মোটেই খাওয়া ঠিক না। জেনে নিন সেসব খাবার এবং এগুলো কেন ক্ষুধার সময়ে খেতে নেই।

১) ঝাল খাবার

লাঞ্চে যেতে দেরি হয় গেছে, ঝাল ফ্রাইয়ের প্লেটের ওপর হামলে পড়লেন আপনি, কী হবে জানেন? আপনার পেটে গণ্ডগোল তৈরি হবে। খালি পেটে ঝাল খেলে এই মশলা আপনার স্টমাক লাইনিঙের ওপর সরাসরি প্রভাব ফেলবে। ফলে যতই মজা লাগুক, খাবার খেয়ে অসুস্থ হয়ে যেতে পারেন আপনি। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে কী করবেন? ঝাল খাওয়ার আগে খেতে পারেন দুধ অথবা দই, এতে সরাসরি ঝালের প্রভাব পাকস্থলীর ওপর পড়বে না।

২) শুধু ফল

খালি পেটে ফল খেতে নেই- এ কথাটা ছোটবেলা থেকেই আমরা জানি। এটা আসলেও সত্যি কথা। আর শুধুই ফল খেয়ে আসলে তেমন একটা লাভ নেই। একটা আপেল বা একটা কলা খেয়ে বেশিক্ষণ থাকতে পারবেন না, একটু পরেই ক্ষুধায় আবার পেট চোঁ চোঁ করতে থাকবে। এর সাথে আপনার খাওয়া উচিৎ কোনো ধরণের প্রোটিন। ফলের সাথে খান কিছু বাদাম, পিনাট বাটার অথবা পনির।

৩) মিনিপ্যাক বিস্কুট

ছোট এক প্যাকেট বিস্কুট বা চিপস বেশিক্ষণ পেটে থাকবে না। এগুলোতে থাকা কার্বোহাইড্রেট কিছুক্ষণের মাঝেই হজম হয়ে যাবে। ফলে আপনার ক্ষুধা ফিরে আসবে দ্রুত। এমনটা হতে পারে যে আপনি আর দুই ঘন্টা পর লাঞ্চ করবেন তাই এখন বেশি ভারী কিছু খেতে চাচ্ছেন না। সেক্ষেত্রে খেতে পারেন ২৫০-৩০০ ক্যালোরির কোনো খাবার যেমন ছোট একটা স্যান্ডউইচ।

৪) কমলা, কফি এবং সস

এই সবগুলো খাবারই খালি পেটে খেলে অ্যাসিডিটি তৈরি করে। এতে পেট খারাপ হবার সম্ভাবনা আছে। বিশেষ করে যাদের গ্যাস্ট্রিক যাদের আছে তাদের জন্য খালি পেটে কফি পান করাটা বেশি ক্ষতিকর। তাহলে কী খাবেন ক্ষুধার সময়ে? সবজি পেটের জন্য এতোটা ক্ষতিকর না। তাই সবজির সাথে হামুস সসের সালাদ খেতে পারেন। ডাল এবং মুরগীর মাংসও এ সময়ে বেশ ভালো।

মূল: The Worst Things To Eat When You’re Starving, Huffington Post

 

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top