বন্ধ সাইটে প্রবেশ করার ৭টি সহজতম উপায়

বিগত দশকে ইন্টারনেটের জনপ্রিয়তা ব্যাপক হারে বেড়েছে। সেই সাথে বেড়েছে জ্ঞান-বিজ্ঞানের প্রসার আর চর্চা। সুবিধা যেমন আছে তেমনই অসুবিধাও অনেক আছে। তাই সরকার মাঝে মাঝে এখন ফেসবুক, ট্যুইটার, ইউটিউব, ভাইবার, হোয়াটসঅ্যাপ বন্ধ করে দিচ্ছে। শুধু সরকার নয়, কোনো কোনো প্রতিষ্ঠানও নানা কারণে এ ধরনের সাইটগুলো ব্লক (Block) করে দেয়। ফলে এ্যাডমিনিষ্ট্রেটরের অনুমতি ছাড়া এসব সাইটে এক্সসেস করা যায় না। আজ এই পোষ্টে আপনাদের জানাব কিভাবে আপনি ব্লক করা ওয়েব সাইটগুলোতে সহজে এক্সসেস করতে পারবেন।

১) প্রক্সি সার্ভার (Proxy Servers) ব্যবহার করে
আপনি প্রক্সি সার্ভার (Proxy Servers) ব্যবহার করে সহজেই ব্লক ওয়েবাসাইটে প্রবেশ করতে পারবেন। প্রক্সি সার্ভারের নাম আপনারা অবশ্যই শুনে থাকবেন। না শুনে থাকলে অন্য কোনোদিন এটা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা যাবে। সাধারণত কোনো সাইটকে ব্লক করা মানে ঐ সাইটে আপনার সার্ভারের অনুপ্রবেশ নিষিদ্ধ করে দেয়া। মানে ঐ সাইটটিতে শুধু আপনার সার্ভারটিই প্রবেশ করতে পারবেন না। এই ধরণের নিষেধাজ্ঞা আপনার PC’র Administration থেকে জারি করা যায়। তাই কোনো মতে যদি আপনি শুধু আপনার সার্ভারটি পরিবর্তন করতে পারেন তাহলে অনায়াসেই আপনি ঐ সাইটে এক্সসেস করতে পারবেন।

কিন্তু এটাতে একটা ছোট সমস্যা আছে। প্রক্সি সার্ভারগুলো সাধারণত ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত থাকে। এই সার্ভার ব্যবহার করলে আপনার যে কোনো ফাইল ভাইরাসে ইনফেক্টেড হওয়ার সম্ভবনা আছে। তাই প্রক্সি সার্ভার ব্যবহার করার আগে খুব সতর্ক থাকবেন। সচেতন থাকলে আপনি এই সমস্যাটি এড়িয়ে যেতে পারবেন।

এখন প্রশ্ন হলো কিভাবে আপনি প্রক্সি সার্ভার পাবেন? ইন্টারনেটে অজস্র প্রক্সি সার্ভার আছে। যারা ইন্টারনেট সংশ্লিষ্ট কাজ করেন তারাই এসব সার্ভার তৈরি করে থাকেন। আমি আপনাদের কিছু সাইটের নাম দিয়ে দিচ্ছি যেখান থেকে আপনি সহজেই প্রক্সি সার্ভার পেতে পারেন। তবে এটা শত ভাগ ভাইরাসহীন হবে এমন নিশ্চয়তা দিতে পারছি না। আপনাকে খুব সতর্ক হয়ে এটি খেয়াল রাখতে হবে। ওপরের ছবিটি দেখুন।

২) গুগোল ট্রান্সলেট (Google Translate) ব্যবহার করে
গুগোল ট্রান্সলেট (Google Translate) সার্ভিসটা গুগোলের একটা ফ্রী সার্ভিস। কিন্তু ফ্রী হলেও এর সুবিধা অনেক। আপনি এই সার্ভিস ব্যবহার করেও ব্লক ওয়েবসাইটে এক্সসেস নিতে পারবেন। নিচের কাজগুলো ধারাবাহিকভাবে অনুসরণ করুন-

প্রথমে গুগোল ট্রান্সলেটে প্রবেশ করুন-Google Translate
এবার ছবিতে দেখানো অপশনটিতে ক্লিক করে আপনার পছন্দ মতো যে কোনো একটি ভাষা নির্বাচন করে নিন।
এখন বক্সে আপনি যে সাইটে প্রবেশ করবেন তার URL দিন এবং Enter প্রেস করুন। ব্লক সাইটটি গুগোল আপনার ভাষায় অনুবাদ করবে; ফলে আপনি সে ভাষা থেকে সাইটটিকে দেখতে পারবেন।

৩) ওয়েবসাইটের আইপি (IP) ব্যবহার করে
ডোমেইনের নামের পরিবর্তে সরাসরি ওয়েবসাইটের আই (IP) ব্যবহার করেও আপনি ব্লক ওয়েব সাইটগুলোতে প্রবেশ করতে পারবেন। প্রতিটি সাইটেরই একটি নিজস্ব IP Address থাকে। সেক্ষেত্রে আপনাকে সাইটগুলোর আইপি জানতে হবে। তবে এই প্রক্রিয়াটি সব ক্ষেত্রে কাজে নাও লাগতে পারে। সাইটের আই পি এড্রেস জানতে এখানে প্রবেশ করুন- Convert Host name to IP Address

৪) Short URL সার্ভিস ব্যবহার করে
এটাও ব্লক সাইটে প্রবেশ করার একটা ভালো উপায়। এক্ষেত্রে ব্লক সাইটগুলোর Short URL পেতে হলে আগে এই সাইটগুলোতে প্রবেশ করুন- TinyURL , SNIPURL। তারপর যে ব্লক সাইটে যেতে চান তার URL বা Link টি Copy এখানে Paste করে দিন। ব্যস আপনি Short URL টি পেয়ে যাবেন। এটা হচ্ছে YouTube এর শর্ট URL- YouTube Short URL। দেখতে পারেন।

৫) DNS Server পরিবর্তন করে
DNS Server কি সেটি জানার জন্য এখানে যেতে পারেন- DNS সমস্যা fixed করে ইন্টারনেটের Speed বাড়ান। আপনার PC’র DNS Server পাল্টানোর জন্য নিচের ছবিটি অনুসারে কাজ করুন-

আপনি চাইলে 8.8.8.8 বা 8.8.4.4 এই দুইটি এ্যাড্রেসও ব্যবহার করতে পারেন। এটা গুগোলের এ্যাড্রেস। গুগোলও DNS Service দিয়ে থাকে।

৬) http থেকে https করে
এটা বেশ সহজ একটা পন্থা। যে ওয়েবসাইটের URL শুরু হয় http দিয়ে, তাতে আপনাকে শুধুমাত্র http’র জায়গায় https লিখে দিতে হবে। ব্যস,কাজ হয়ে যাবে।

৭) প্রক্সি সফটওয়্যার (Proxy Software) ব্যবহার করে
এই সফটওয়্যারগুলো ফ্রীতে পাওয়া যায়। আপনি এগুলো ব্যবহার করেও ব্লক সাইটে এক্সসেস নিতে পারেন। এগুলোর ধারণ ক্ষমতা বেশ অল্প। শুধু মাত্র ব্লক সাইটগুলোতে এক্সসেস করতে এগুলো ব্যবহার করা হয়। আপনি নিচের লিংকগুলো থেকে এই ধরণের সফটওয়্যার ফ্রীতে ডাউনলোড করে নিতে পারেন-

GTunnel Software
Ultrasurf
TOR
hyk-proxy
Your Freedom

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top