২০১৫ সালের সেরা পাঁচ ফ্যাশন…

পোশাক। মানুষের দৈনন্দিন জীবনের পাঁচটি মূল চাহিদার একটি। এই সময়ে পোশাক দেখেই একজন মানুষ সম্পর্কে সবাই ধারণা করে মানুষটি কেমন হবে, কেমন হবে তার রুচিবোধ। আর তাইতো আমরা নিয়ে এসেছি এ বছরের সেরা পাঁচ আউটফিট যা সময় উপযোগী ছিল। তাহলে আসুন দেখে নেয়া যাক এ বছরে কি ছিল ফ্যাশনে ইন।

পালাজো প্যান্টস…

১৯৪০ সাল থেকে ফ্যাশনে থাকা সত্ত্বেও খুব একটা প্রচলিত ছিল না এই প্যান্ট। ক্যাথারিন হেপবার্ন, গ্রিতা গার্বোর মতো অভিনেত্রীদের প্রথম পরতে দেখা গিয়েছিল এই বিশেষ প্যান্টটিকে। কিন্তু ২০১৫ সালের প্রায় প্রথম দিক থেকেই বেশিরভাগ মেয়েকে পালাজো পরতে দেখা গেছে। গরমকালের জন্য এই প্যান্টটির জুড়ি মেলা ভার। ঢিলাঢালা এই প্যান্ট পরেও যথেষ্ট আরাম। কটন থেকে শুরু করে সিফন এবং সিল্ক কাপড়ের পালাজোও দেখতে পাওয়া গেছে।  কোনও প্রিন্টেড অথবা সলিড কালারের পালাজোর ওপরে একটা টপ বা কুর্তা পরে নিলেই আপনি তৈরি হয়ে যেতে পারেন কোনও ডেটের জন্য। যদি আপনার চেহারা একটু ভারী হয় তাহলে এই প্যান্টের সঙ্গে পরতে পারেন লঙ্গ কুর্তি। তবে সেক্ষেত্রে খেয়াল রাখবেন আপনার পালাজোর রঙ যেন গাঢ় হয় এবং কুর্তির রঙ হালকা হয়। নাহলে কিন্তু আরও বেশি মোটা দেখতে লাগবে আপনাকে।

শারারা…

এই পোশাকের নাম হয়ত সকলেই জানেন। কারণ মুসলিম সম্প্রদায়ের মেয়েরা বিয়ের সময় এই পোশাকটি পরে থাকেন। সম্প্রতি বাজিরাও মাস্তানি ছবিতে দীপিকা পাডুকনকে এই ধরনের পোশাক পরতে দেখা গিয়েছে। পোশাকটি আদতে দেখতে সালোয়ার সুটের মতোই। কিন্তু প্যান্টের পায়ের কাছটি অদ্ভুত রকমের ঢিলাঢলা। সম্প্রদায়ে ভিত্তিতেই নয় দেশের আবহাওয়ার ওপর নির্ভর করেও অনেকেই পরে থাকেন শারারা। যেমন কাশ্মীর, পাঞ্জাব, বেলুচিস্তান ইত্যাদি। শীতকালে যেকোনও অনুষ্ঠানে বিশেষ লুক দিতে অবশ্যই পরে নিতে পারেন শারারা।

ফ্লোরাল শার্ট…

হাওয়াই শার্ট অর্থাৎ ছেলেদের হাফ হাতা শার্ট। এই শার্টের ওপর যদি ফুলের পাপড়ি বা ফুল বা প্রজাপতি বা অনেকগুলো রঙ দিয়ে আঁকিবুকি কাটা থাকে তখন তাকে ফ্লোরাল শার্ট বলা হয়ে থাকে। প্রখর গরমেও ছেলেদের কুল দেখানোর জন্য একেবারে আদর্শ শার্ট এটি। হাওয়াই শার্টকে খানিকটা ফরমাল শার্টের মতো দেখতে ছিল বলেই ছেলেরা এটাকে ক্যাজুয়াল হিসেবে ব্যাবহার করতে পারত না। তবে ফ্লোরাল শার্টের সঙ্গে কালারিং ট্রাউজার এবং চোখে একটা সানগ্লাস দিয়ে নিলেই ব্যস! ফুটিফাটা গরমেও হট দেখতে লাগবে আপনাকেও। গার্লফ্রেন্ডের সঙ্গে ডেটে গেলে তো চোখই ফেরাতে পারবে না আপনার প্রিয়জন।

ক্রপ টপ…

ক্রপ টপ হল এমন একটি টপ যা খানিকটা উঠে থাকবে আপনার পেটের বা কোমরের ওপরে। যা দেখলে মনে হবে টপের বাকি অংশটিকে ক্রপ করে কেটে ফেলা হয়েছে। ১৯৮৩ সালে পপ সিঙ্গার ম্যাডোনা তাঁর ‘লাকি স্টার’ গানের ভিডিওটিতে ক্রপ টপ পরে তুলে বহু সমালোচনার সম্মুখীন হয়েছিলন। কিন্তু এখন অসাধারণভাবে ফ্যাশনে ইন করা হয়েছে এই বিশেষ ধরনের টপটিকে।

লঙ্গ কুর্তি…

এক দু বছর আগেও বড় কুর্তি আসেনি বাজারে। তখন ছোট কুর্তি পড়ার ট্রেন্ড চলছিল। তারপর প্রায় ২০১৫ সালের প্রথম দিকেই বাজারে আসতে শুরু করে লঙ্গ কুর্তি । ‘টু স্টেটস’ সিনেমাতে আলিয়া ভাটকে পরতে দেখা গিয়েছিল এই লঙ্গ কুর্তি। বলা যেতেই পারে ঠিক তার পর থেকেই বাজারে রমরমিয়ে চলতে শুরু করে এই কুর্তি। ট্রাডিশানাল, ক্যাজুয়াল অথবা ফরমাল যে কোনও ধরনেই পাওয়া যায় এই কুর্তি। লঙ্গ কুর্তি পরলে বেশ স্মার্ট দেখতে লাগে সকলকেই। যদি আপনার পা শরীরের তুলনায় খানিকটা মোটা হয় তাহলে আপনার জন্য একেবারে আদর্শ হবে এই ড্রেস। কারণ আপনার পায়ের বেশিরভাগ অংশই যে ঢাকা থাকবে কুর্তির তলায়। সব থেকে বড় কথা গ্রীষ্ম থেকে শীত সমস্ত কালেই পরা যেতে পারে এই কুর্তি।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top