শীতকালে ড্রাই স্কিনের উপযোগী ফ্রুট প্যাক

শীতকালে ড্রাই স্কিনের উপযোগী
ফ্রুট প্যাক

আগামী ক’দিনে ঠান্ডা আরও বাড়বে বলে, আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস। তাই ত্বককে রক্ষা করতে ঢাল-তরোয়াল নিয়ে আগে থেকে রেডি হও। বিশেষ করে যাদের ড্রাই স্কিন, তাদের সমস্যা তো আরও বাড়বে। এ সময় ফ্রুট প্যাক ত্বকের পুষ্টির জন্য খুবই উপকারী, যা তোমার স্কিন রাখবে সফ্ট অ্যান্ড স্মুদ!
ফ্রুট প্যাক লাগানোর আগে লোশন বা মিল্ক ক্লেনজ়ার দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে নিতে হবে। তারপর মাইল্ড স্ক্রাব দিয়ে হালকাভাবে ঘষে এক্সফোলিয়েশন।
ফ্রুট প্যাক
* অর্ধেক কলা, একচামচ মধু এবং দু’চামচ টকদই একসঙ্গে মিশিয়ে মুখে লাগাতে হবে। মিনিটদশেক রেখে নরম কাপড় দিয়ে মুখ মুছে ফেলে ঈষদুষ্ণ জলে ধুয়ে ফ্যালো।

* এক বা দু’ টুকরো পেঁপে ভাল করে চটকে পুরো মুখে মাখতে হবে। এর সঙ্গে অন্য কিছু মেশাবে না। শুষ্ক ত্বকে জেল্লা আনতে পেঁপে খুবই কার্যকরী।

* দেড় চামচ মধু, একটা ডিমের সাদা অংশ, দু’চামচ গ্লিসারিন একসঙ্গে ভাল করে মেশাতে হবে। তারপর এর সঙ্গে সামান্য ময়দা মেশাও। ওই ঘন পেস্ট সারা মুখে লাগাতে হবে। মিনিট পনেরো-কুড়ি রেখে জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফ্যালো। নিয়মিত এই মাস্কটি ব্যবহার করলে, স্কিন হবে নরম ও মোলায়েম।

* দু’চামচ কমলালেবুর রস, একটা ডিমের হলুদ অংশ অল্প আমন্ড পাউডার এবং হাফ চামচ লেবুর রস একসঙ্গে ভাল করে মেশাতে হবে। আধঘণ্টা রেখে ধুয়ে ফেলবে।

* একটা কলা ভাল করে চটকে, তার সঙ্গে দু’চামচ মধু মিশিয়ে মুখে মাখো। টান ধরলে ধুয়ে ফ্যালো।
জরুরি কথা: ফেসপ্যাক বানানোর সময় তাতে কখনওই জল দেবে না। দরকার হলে গোলাপজল মেশাবে। ফেসপ্যাক লাগানোর পর, তা তোলার জন্য কখনওই সাবান ব্যবহার করবে না। সবসময় মুখ ধুতে হবে ঈষদুষ্ণ জলে।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top