শবনম ফারিয়ার অন্যরকম ভালোবাসা

হঠাৎ করে যে কি ঘটে গেল। একই দিনে দুটি দূর্ঘটনা। ভোরবেলা আগুনে পুড়ে ছাঁই হয়ে গেল মিরপুর ১২ নম্বরের পল্লবীর ইলিয়াস মোল্লা বস্তির প্রায় পাঁচ হাজার ঘর। আবার একই দিন নেপালে ঘটলো বিমান দুর্ঘটনা। যেখানে বাংলাদেশি ৫১ জন মানুষের জীবন প্রদীপ নিভে যায়। দেশের এ পরিস্থিতিতে নিজের জন্মদিন উদ্‌যাপন করার সব উৎসাহ হারিয়ে ফেলেছেন ছোট পর্দার তারকা শবনম ফারিয়া।

১৪ মার্চ ছিল ফারিয়ার জন্মদিন। আগে থেকেই আপনজনদের নিয়ে পার্টির আয়োজন করেছিলেন তিনি। সবকিছু ঠিকঠাক ছিল। কিন্তু দুটি বড় ঘটনায় কোনো আনন্দ উত্সব করা থেকে নিজেকে বিরত রাখেন এই অভিনেত্রী। জন্মদিনের জন্য বরাদ্দ বাজেট ক্ষতিগ্রস্ত বস্তিবাসীদের কয়েকটি পরিবারকে দান করে দেন।

শবনম ফারিয়া তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেছেন, `জীবনে এই প্রথম আমি নিজের জন্মদিন ‘‘উদ্‌যাপন’’ করতে পারলাম না। কিছু ঘটনা আমার হৃদয়ে নাড়া দিয়েছে! আমি জানি জীবন অনিশ্চিত, কিন্তু এটি আমাকে ভীষণভাবে আঘাত করেছে! তবে হ্যাঁ, আমাকে বলতেই হবে, আমি খুব ভাগ্যবতী। মানুষের প্রচুর আশীর্বাদ আর নিঃস্বার্থ ভালোবাসা পেয়েছি! তাই যাঁরা আমাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন, আমার জন্য দোয়া করেছেন আর বাসায় কেক আর উপহার পাঠিয়েছেন, তাদের সবাইকে ধন্যবাদ। আমার বিষণ্ন দিনটিকে বিশেষ করে তোলার জন্য ধন্যবাদ।’

ফারিয়া বলেন, আমি চেয়েছিল জন্মদিনের পার্টির খরচ দিয়ে গরীব বস্তিবাসীদের কিছুটা সাহায্য করতে। কিন্তু সবাইকে তো হেল্প করা সম্ভব না। তাই যে কয়জনকে পারা যায়, তাদের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি।’

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top