ঢালিউডে মৌসুমীর ২৫ বছর

আরিফা পারভিন জামান মৌসুমী। যিনি মৌসুমী নামে অধিক পরিচিত। দেশের জনপ্রিয় চলচ্চিত্র অভিনেত্রী। মৌসুমী অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’। তিনি প্রায় দুইশ’র মত চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। চলচ্চিত্রের পাশাপাশি ছোট পর্দার বেশ কিছু নাটক ও বিজ্ঞাপন চিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। এছাড়া ২০০৩ সালে ‘কখনো মেঘ কখনো বৃষ্টি’ সিনেমা পরিচালনার মাধ্যমে একজন পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। মৌসুমীর নিজস্ব প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানও রয়েছে। চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। এছাড়াও অর্জন করেন একাধিক বাচসাস পুরস্কার ও মেরিল প্রথম আলো পুরস্কার।

মৌসুমী ১৯৭৩ সালের ৩ নভেম্বর বাংলাদেশের খুলনা জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। মৌসুমীর বাবার নাম নাজমুজ্জামান মনি এবং মায়ের নাম শামীমা আখতার জামান। ছোটবেলা থেকেই একজন অভিনেত্রী এবং গায়িকা হিসেবে তার কর্মজীবন শুরু করেন। এরপর তিনি ‘আনন্দ বিচিত্রা ফটো বিউটি কনটেস্ট’ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হন, যার ওপর ভিত্তি করে তিনি ১৯৯০ সালে টেলিভিশনের বাণিজ্যিকধারার বিভিন্ন অনুষ্ঠান নিয়ে অংশ নিতে শুরু করেন।

মৌসুমী ১৯৯৬ সালের ২ আগষ্ট তারিখে জনপ্রিয় চিত্রনায়ক ওমর সানী এর সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবন্ধ হন। দাম্পত্য জীবনে তাদের ফারদিন এহসান স্বাধীন (ছেলে) এবং ফাইজা (মেয়ে) নামের ২টি সন্তান রয়েছে। এই গুনি তারকা ঢালিউডে সুদীর্ঘ ২৫ বছর অতিক্রম করেছেন।

দীর্ঘ পথ চলায় মৌসুমীর ক্যারিয়ারে সফলতার পাল্লাটাই ভারি। অসংখ্য ভালো সিনেমা উপহার দিয়েছেন দর্শকদের।

এ নায়িকা নিজের পছন্দের সিনেমা নিয়ে বলেন, ‘প্রথম থেকেই বেছে বেছে সিনেমা করেছি। চাষী নজরুল ইসলাম, গাজী মাজহারুল আনোয়ার, শহিদুল ইসলাম খোকন, সোহানুর রহমান সোহানদের মতো পরিচালকদের সিনেমাতে কাজ করার সুযোগ হয়েছে। তাঁদের সিনেমাগুলোই আমার কাছে সেরা। নাম বলতে হলে বলব- ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’, ‘প্রথম প্রেম’, ‘আত্ম অহংকার’, ‘মাতৃত্ব’ ও ‘দেবদাস’-এর কথা।’

দীর্ঘ সময়ের পাওয়া না পাওয়াগুলো নিয়ে মৌসুমী বলেন, ‘চলচ্চিত্রে আমার কোনো ‘না পাওয়া’ নেই। যা কিছু অর্জন তা এই ইন্ডাস্ট্রি থেকেই এসেছে। তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছি, দেশজুড়ে আছে ভক্ত ও শুভাকাঙ্ক্ষীরা। তারা আমাকে ভালোবাসে। সবই তো পাওয়ার গল্প।’

ক্যারিয়ারে কাউকে প্রতিদ্বন্দ্বী ভেবেছিলেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে মৌসুমী বলেন, ‘কখনোই না, বরং সবাইকে বন্ধুর মতো দেখেছি। চলচ্চিত্রের সবাই জানেন আমার সময়কার শাবনূর, শাবনাজ, লিমা, শাহনাজ—সবার সঙ্গে আমার দারুণ সম্পর্ক। এখনো নিয়মিত যোগাযোগ হয় আমাদের।’

২৫ বছরের এই পথ চলাকে স্বাগত জানিয়েছে তার ভক্তরা। বিশেষ এই দিনটি নিয়ে মৌসুমী বলেন, ‘দিনটি সাদামাটাভাবেই উদ্‌যাপন করতে চেয়েছিলাম, কিন্তু আমার ফ্যান ক্লাবের সদস্যরা উত্তরার এক রেস্টুরেন্টে দিনটি উদ্‌যাপনের পরিকল্পনা করেছে। সেখানেই যাব।’

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top