বোরকা পরে মন্দির জীবাণুমুক্ত করছেন রোজাদার তরুণী, ভারতজুড়ে প্রশংসা

করোনাযোদ্ধা ইমরানা সঈফি। মুখ ঢাকা বোরখায়। কিন্তু তা পরেই মন্দিরে ঢুকে যাচ্ছেন তিনি। জীবাণুমুক্ত করছেন গোটা মন্দির। গর্ভগৃহে অধিষ্ঠিত দেবদেবীর মূর্তির কাছেও পৌঁছোতে কোনো অসুবিধা নেই তাঁর। তাঁকে হাসি মুখেই মন্দিরে স্বাগত জানাচ্ছেন পুজারিরা।

তিন সন্তানের মা, বছর ৩২-এর তরুণী এখন রমজান মাসের রোজাও রাখছেন। সেই সঙ্গেই সাফাইকর্মী হিসেবে জীবাণুনাশক-স্প্রে নিয়ে ঘুরছেন ভারতের উত্তর দিল্লির এ প্রান্ত থেকে সে প্রান্ত। স্বাস্থ্যবিধি মেনে বোরখা পরে করছেন এলাকা জীবাণু-নাশ করার কাজ।

৩২ বছর বয়সী তরুণী ইমরানা সাইফির উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে উত্তর দিল্লির নেহরু বিহার। দেশব্যাপী প্রশংসিতও হচ্ছেন তিনি।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়, তিন সন্তানের জননী ইমরানা রোজা রেখেই জীবাণুনাশক স্প্রে নিয়ে ঘুরছেন উত্তর দিল্লির প্রতিটি প্রান্ত। ধর্ম-বর্ণ পার্থক্য ভুলে তাঁকে এই কাজে সহযোগিতা করছে স্থানীয় মন্দির ও গুরুদুয়ারা কমিটি।

ইমরানার পরিবার সূত্রে জানা যায়, সপ্তম শ্রেণির পর আর পড়াশোনা চালিয়ে নিয়ে যেতে পারেননি এই তরুণী। এই সংকটের মুহূর্তে মানুষের পাশে থাকতে নিজে উদ্যোগ নিয়ে তিন সদস্যের একটা দল তৈরি করেন তিনি।

স্থানীয়দের দাবি, বরাবরই মানবতার পক্ষে লড়াই করেন ইমরানা। মাস তিনেক আগে নাগরিকত্ব বিল নিয়ে যখন উত্তাল দিল্লি, তখনো ধর্মের ভেদাভেদ না রেখে আর্তদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছিলেন ইমরানা সাইফি।

ইমরানা বলেছেন, ‘এই সংকটকালে আমরা মন্দির-মসজিদ ভেদাভেদ করছি না। যেখানেই দেখছি জীবাণুমুক্ত করার প্রয়োজন, ঢুকে স্প্রে করে দিচ্ছি। এখন পর্যন্ত কোনো মহল থেকে বাধা আসেনি। আমি ভারতের সম্প্রীতি বজায় রাখতে চাই। আমি দেখাতে চাই, আমরা সবাই এক, একসঙ্গেই বাঁচতে চাই।’

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top