৪০ মিনিটেরও কম সময়ে তৈরি করে ফেলুন অত্যন্ত সুস্বাদু ‘জিলাপি’!

জিলাপি তৈরি করতে অনেক সময় লাগে বলেই ধারণা সকলের। ব্যটার তৈরি করে কয়েক ঘণ্টা রেখে না দিলে সঠিকভাবে জিলাপি তৈরি করা যায় না বলে মনে করেন। কিন্তু আপনি জানেন কি? ৪০ মিনিটেরও কম সময়ে আপনি তৈরি করে ফেলতে পারবেন অত্যন্ত সুস্বাদু জিলাপি। অবাক হচ্ছেন? তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক সুস্বাদু ইনস্ট্যান্ট জিলাপি তৈরির খুব সহজ রেসিপিটি।

উপকরণঃ

– ১ কাপ ময়দা
– আধা কাপ টকমিষ্টি দই
– ১ চা চামচের সামান্য বেশি বেকিং পাউডার
– কয়েক ফোঁটা কমলা ফুড কালার
– ঘি বা ডালডা ভাজার জন্য
– ২ কাপ চিনি
– ১ কাপ পানি

পদ্ধতিঃ

  • – প্রথমেই চিনি ও পানি একসাথে দিয়ে প্যান চুলায় বসিয়ে জ্বাল করতে থাকুন শিরা তৈরির জন্য। মাঝারি আচে জ্বাল দিয়ে মাঝারি ঘন শিরা তৈরি করে নিন। শিরা ঠিকমতো হয়েছে কিনা তা দেখার জন্য ঠাণ্ডা পানিতে কয়েক ফোঁটা শিরা ফেলে দেখুন। শিরা ছড়িয়ে না পড়ে যদি গোল বলের মতো হয় তাহলে বুঝবেন শিরা তৈরি হয়ে গিয়েছে। তাহলে নামিয়ে রাখবেন।
  • – শিরা জ্বাল করতে করতেই ময়দা ও বেকিং পাউডার একসাথে ভালো করে মিশিয়ে ফেলবেন। এবং এতে মেশাবেন দই ও ফুড কালার। ভালো করে মিশিয়ে পরিমাণমতো পানি দিয়ে ঘন মসৃণ ব্যটার তৈরি করে নিন।
  • – ব্যটার খুব ঘন হবে না বা পাতলাও হবে না। বেগুনী বা আলুর চপ ভাজার জন্য যেমন অল্প ঘন ধরণের বেসনের ব্যটার তৈরি করেন ঠিক তেমনটা।
  • – কেকের উপরে ক্রিম সাজানোর যে পাইপিং ব্যাগ পাওয়া যায় তাতে নিন এই ব্যটারগুলো। যদি না থাকে একটি প্ল্যাস্টিকের ব্যাগে ভরে নিন এই ব্যটার এবং ব্যাগের এক কিনারে একটু গোল ফুটো করে দিন।
  • – একটি তলা ভারী কড়াইয়ে ডুবো তেলে ভাজার জন্য ঘি বা ডালডা দিয়ে গরম করুন। যদি ঘি বা ডালডা ব্যবহার করতে না চান তাহলে সাধারন তেলেও চলবে। তেল অতিরিক্ত গরম করবেন না। মাঝারি ধরণের গরম করে নিন।
  • – ব্যাগ চেপে হাত ঘুরিয়ে জিলাপির প্যাঁচ তৈরি করে জিলাপি ফেলুন তেল বা ঘি তে। সোনালি বাদামী রঙের করে ভেজে নিন দুপাশ এবং তুলে হালকা গরম শিরার মধ্যে ফেলুন।
  • – ৩-৪ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন শিরাতে তারপর তুলে নিন। ব্যস, এবার পরিবেশন করুন ইফতারে। ১৫ মিনিট শিরা তৈরি এবং পাশাপাশি ব্যটার তৈরি এবং ভেজে ৩-৪ মিনিট শিরায় ডুবিয়ে পরিবেশন। দেখলেন তো ৪০ মিনিটেরও কম সময়ে তৈরি করে ফেলতে পারবেন সুস্বাদু জিলাপি।

 

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top