আসছেন বিস্ফোরক লিজা

বিস্ফোরন ঘটানো তার কাজ। হয়তো তাই মনের অজান্তেই হয়ে উঠেছেন বিস্ফোরক। মডেল ড্যানিয়েল লিজার ক্ষেত্রে এমন বিশেষণে ভুল হবে না। বিস্ফোরক, বিস্ফোরন আর নিউক্লিয়ার জগতে কাজ করতে করতে নিজেই নাম লেখালেন মডেলদের তালিকায়- খুব কম দিনেই প্রসংশা ও প্রাপ্তিতে আকাঙ্খিত সুপার মডেল তিনি।

মিস গ্রেট ব্রিটেন কনটেস্টের এবারের আসরের শক্ত প্রতিযোগী ড্যানিয়েল লিজা। DLM Risk Management Ltd নামের একটি প্রতিষ্ঠানের মালকিন তিনি। তার প্রতিষ্ঠান নিউক্লিয়ার ইন্ডাস্ট্রিতে risk assessment যোগান দেয়। পাশাপাশি রূপের ফেরিওয়ালা হিসেবেও তার নাম ডাক। মডেল এজেন্সি এবং ডিজাইনারদের গুডবুকে রয়েছে তার নাম।

৩৯-২৭-৩৯ শারীরীক অবয়বের অধিকারী লিজার দেহসৌষ্ঠবকে বলা হচ্ছে ‘কোকাকোলা ফিগার’। এসব স্তুতিবাক্য উপভোগ করেন তিনি, নিজের সম্পর্কে স্পষ্ট বক্তব্য‚ ‘আমি জিম ও শরীরচর্চায় আসক্ত।’ তবে সুন্দরীদের বুদ্ধি থাকে না‚ সেই ধারনা ভেঙে চুরমার করেছেন তিনি। অমন শরীরীক রেখা আর আবেদনের উপাদান নিয়ে একদিকে মাতাচ্ছেন ফ্যাশন দুনিয়া, অন্যদিকে ক্ষুরধার ব্যবসায়িক বুদ্ধি নিয়ে পরিচালনা করছেন নিজের প্রতিষ্ঠান।

বাবা মিলিটারির কনট্রাক্টর হওয়াতে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ঘুরে বেরিয়েছেন ড্যানিয়েল লিজা। মাতৃভাষা ইংরেজি ছাড়াও অনায়াসে বলতে পারেন ফরাসি‚ স্প্যানিশ‚ পর্তুগিজ এবং আরবি ভাষা। বার্মিংহ্যাম ইউনিভার্সিটি থেকে গ্র্যাজুয়েশন শেষ করে আপাতত রূপের বিস্ফোরণ এবং পারমাণবিক জগৎ নিয়ে বিভোর ২৫ বছর বয়সী এই ব্রিটিশ বিউটি কুইন। বম্বশেল কথাটির আক্ষরিক অর্থ বোঝাতে বর্তমান ফ্যাশন দুনিয়ায় অনন্য নাম ড্যানিয়েল লিজা।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top