প্রায়ই মাথাব্যথায় ভোগেন? খাদ্যতালিকা থেকে বাদ দিন এই খাবারগুলো

এমন অনেকেই আছেন যাদের প্রায় দিনই মাথাব্যথার সমস্যা হতে থাকে। দু দিন পরপর এই মাথাব্যথার সমস্যা নিশ্চয়ই সুখকর কোনো বিষয় নয়। কিন্তু আপনি জানেন কি ঠিক কোন কারণে আপনি ভুগছেন এই যন্ত্রণায়? অনেক সময় সাধারণ কিছু ব্যাপার যেমন অতিরিক্ত রোদে ঘোরাঘুরি, গরম, সর্দি, জ্বর, পানিশূন্যতা, অতিরিক্ত শব্দ, মানসিক চাপ ইত্যাদির কারণে মাথাব্যথা হয়ে থাকে। আবার মারাত্মক ধরণের মাথাব্যথা অনেক সময় শারীরিক অসুস্থতা, মাইগ্রেন এমনকি ব্রেইন টিউমারের লক্ষণ প্রকাশ করে থাকে। আর যদি এগুলোর কোনোটাই আপনার মাথাব্যথার কারণ না হয়ে থাকে তাহলে নজর দিন আপনি কি কি খাচ্ছেন সেদিকে। কিছু খাবার খাদ্যতালিকা থেকে বাদ দিলেই দেখবেন প্রতিদিনের এই মাথাব্যথা সমস্যা থেকে মুক্তি পেয়ে গিয়েছেন খুব সহজেই।

১) আইসক্রিম

কষ্ট পেলেন? মনের কষ্ট মনেই চাপা রেখে মাথাব্যথার হাত থেকে মুক্তি পেতে বাদ দিতে হবে আইসক্রিম খাওয়া। আইসক্রিম খাওয়ার পর অনেক সময় কপালের দিকে তীক্ষ্ণ ধারালো ব্যথা শুরু হয়ে যায়। অনেকেই আছেন আইসক্রিমের ঠাণ্ডা সহ্য করতে পারেন না। যদি দেখেন আইসক্রিম খাওয়ার পর মাথাব্যথা হচ্ছে তাহলে বুঝে নেবেন এটাই বাদ দিতে হবে।

২) চীজ

চীজ তৈরি করা হয় নানা ধরণের ব্যাকটেরিয়া, মোল্ড ও ইষ্টের ফারমেন্টেশনের মাধ্যমে, যা প্রোটিন ভেঙে টায়রামাইন তৈরি করে ফেলে। আর এই টায়রামাইন দেহে হাইপারটেনসিভ ক্রাইসিসের জন্য দায়ী যা একপ্রকার উচ্চ রক্ত চাপের সমস্যা। এই সমস্যার কারণে অনেক সময় চীজ খাওয়ার ফলে মাথাব্যথার সমস্যায় ভোগেন অনেকেই।

৩) ডার্ক চকলেট

সাধারণ মিল্ক চকলেটের তুলনায় ডার্ক চকলেট স্বাস্থ্যের জন্য অনেক ভালো হলেও যারা মাইগ্রেনের সমস্যায় ভোগেন তাদের জন্য একেবারেই স্বাস্থ্যকর নয় এই সুস্বাদু খাবারটি। ডার্ক চকলেটে প্রচুর পরিমাণে ক্যাফেইন থাকে যা মাথাব্যথা উদ্রেক করে। টায়রামাইন এবং ফেনিলেথ্যালামাইন এই দুটি মাথাব্যথা উদ্রেককারী উপাদান রয়েছে চকলেটে। সুরতাং সাবধান।

৪) কলা

কলা নিঃসন্দেহে খুবই পুষ্টিকর সুস্বাদু একটি ফল। কিন্তু এই পুষ্টিকর ফলটিও আপনার মাথাব্যথার কারণ হতে পারে। কারণ কলাতেও রয়েছে মাথাব্যথা উদ্রেককারী উপাদান টায়রামাইন। তবে কলা খাওয়া একেবারে বাদ দিতে বলছি না। প্রথমে দেখুন কলা কতোটা ব্যথা উদ্রেক করে এবং প্রতিদিন না হলেও সপ্তাহে ২/১ দিন কলা খান।

৫) কফি

আপনারা হয়তো শুনে থাকবেন কফি মাথাব্যথা দূর করে। কথাটি সম্পূর্ণ ভুল, বরং কফি পান করলে মাথাব্যথা উলটো বেড়ে যায়। কফি হচ্ছে প্রাকৃতিক ক্যাফেইন যা মাথাব্যথার উদ্রেক করে। কফির সবচাইতে খারাপ দিক হচ্ছে নিয়মিত কফি পানের পর একদিন বাদ গেলে তীব্র মাথাব্যথা শুরু হয়, একে বলা হয় ‘উইথড্রল ইফেক্ট অফ ক্যাফেইন’।

সূত্র: healthydietbase

 

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top