বিব্রতকর শারীরিক সমস্যাটির কিছু সমাধান

লং জার্নিতে যেতে ভয় হয় আপনার? বারবার পাবলিক টয়লেট খুঁজে থাকেন? অথবা জোরে হাঁচি দিতে গেলেও চিন্তা লাগে? তাহলে আপনার থাকতে পারে একটি দুর্বল ব্লাডার।

বেশ কিছু কারণে একজন মানুষের ব্লাডার দুর্বল হয়ে পড়তে পারে। বয়সের কারণে, গর্ভধারনের পর, মেনোপজ বা বয়সের কারণেও ঘন ঘন টয়েলেটে ছুটতে হতে পারে। এছাড়াও কিছু মানসিক, স্নায়বিক বা প্রদাহজনিত কারণে ব্লাডার দুর্বল হতে পারে বলে আমাদের জানান মগবাজারের আদ-দ্বীন হাসপাতালে কর্মরত ডাক্তার তাহমিনা খন্দকার।

কিছু উপায় আছে যাতে এই দুর্বল ব্লাডারের সমস্যাটিকে কিছুটা হলেও কমানো যেতে পারে। আসুন জেনে নেই সেগুলো কী কী।

১) ঘুমাতে যাবার আগে কম পান করুন

দুর্বল ব্লাডারের কারণে অনেকেই রাত্রে ভালোভাবে ঘুমাতে পারেন না। কারণ বার বার ঘুম থেকে উঠে টয়লেটে যেতে হয়। এ কারণে পানি পানের পরিমাণ একটু কম রাখুন। তাই বলে যথেষ্ট পানি পান করবেন না তা নয়। সারাদিন প্রয়োজনমতো পানি পান করুন। রাতের খাবারের পর শেষবারের মতো পানি পান করে নিন। এর কয়েক ঘন্টা পর যখন ঘুমাতে যাবেন ততক্ষণে আপনার ব্লাডার খালি হয়ে যাবে। ঘুমের মাঝে আর সমস্যা হবে না।

২) খাদ্যভ্যাস নিয়ন্ত্রণে রাখুন

এমন কিছু খাবার আছে যেগুলো মুত্রত্যাগের পরিমাণ এবং হার বাড়িয়ে দেয়। বিশেষ করে চা এবং কফি পান করলে আপনার নিঃসন্দেহে বার বার টয়েলেটে যাবার প্রয়োজন হবে। সন্ধ্যার পর কখনোই এসব পান করবেন না। এছাড়াও আর্টিফিশিয়াল সুইটনার এবং কিছু বিশেষ ওষুধ আছে যেগুলোর কারণে বারবার মুত্রত্যাগের প্রবণতা দেখা যায়

৩) ব্যায়াম করুন

বিশেষ কিছু ব্যায়াম আছে যেগুলো অনুশীলনে ব্লাডারের পেশীর ওপর নিয়ন্ত্রণ বাড়ে। ফলে বার বার টয়লেটে যাবার প্রয়োজন পড়ে না। এসব ব্যায়াম শিখে নিতে পারেন।

৪) ওজন ঠিক রাখুন

আপনার ওজন যদি অতিরিক্ত হয়ে থাকে, তবে এই ওজন ঝরিয়ে ফেলাটাও আপনার জন্য উপকারি হতে পারে। অতিরিক্ত ওজন ব্লাডারের ওপর চাপ ফেলে, এ কারণে বারবার মুত্রত্যাগের প্রয়োজন অনুভূত হয়।

৫) পরিমিত পরিমাণে ম্যাগনেসিয়াম গ্রহণ করুন

গবেষণায় দেখা যায়, শরীরে প্রয়োজনমতো ম্যাগনেসিয়াম থাকলে বারবার মুত্রত্যাগের সমস্যা কমে। ম্যাগনেসিয়াম আছে এমন খাবার, যেমন কলা খেতে পারেন প্রতিদিন।

আরও তথ্য: 5 Essential Tips To Help Anyone With A Weak Bladder, Huffington Post
ফটো ক্রেডিট: quebec.huffingtonpost.ca

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top