ওজন কমাতে সকালের নাস্তায় স্বাস্থ্যকর ১০ রকমের স্মুদি

দেহের সুন্দর গঠন ও আকৃতি ঠিক রাখা বিশেষ করে যাদের ইতিমধ্যেই ওজন বেড়ে গিয়েছে তাদের জন্য খুবই কঠিন কাজ। দেহের ওজন যখন অতিরিক্ত বেড়ে যায় তখন শুধু শারীরিক ব্যায়ামেও কাজ হয় না। এর জন্য প্রয়োজন দিনের শুরুতেই বিপাক ক্রিয়ার গতিকে বাড়িয়ে দেয়া। তাই দিনের শুরুতে সকালের নাস্তা হতে পারে এক গ্লাস স্বাস্থ্যকর স্মুদি দিয়ে। ফ্যাট বার্ন করার জন্য এক গ্লাস স্বাস্থ্যকর স্মুদি আপনাকে অনেকক্ষণের জন্য পরিতৃপ্ত রাখতে পারে। শুধু দিনের শুরু নয় দিনের অন্য সময়েও এই স্মুদিগুলো পান করতে পারেন। এছাড়া ওজন কমাতে এই স্মুদিগুলোর যেকোনো একটি বা একাধিক মিলিয়ে চাইলে ৪/৫ দিনের ক্র্যাশ ডায়েটও করতে পারেন।

 

আসুন তাহলে জেনে নেই সেই স্বাস্থ্যকর স্মুদিগুলো সম্পর্কে-

বিপাক ক্রিয়া বাড়ানোর স্মুদি

এই স্মুদির উপাদানগুলোর বৈশিষ্ট্য হচ্ছে কিছু উপাদান ফ্যাট বার্ন করতে সাহায্য করে আবার কিছু উপাদান স্বাদ বাড়াতে সাহায্য করে। উপাদানগুলো হচ্ছে কাঠবাদাম, ব্রকলি, টক দই, উচ্চ আঁশ সমৃদ্ধ স্ট্রবেরি এবং দারুচিনি গুঁড়ো।

  • –   আধা কাপ ননফ্যাট টকদই, ৮ টি কাঠবাদাম, ১/৪ কাপ কাঁচা ব্রকলি(শুধু ফুলগুলো), ১ কাপ ঠাণ্ডা স্ট্রবেরি, ৩/৪ কাপ গ্রীন টি এবং ১/৪ চা চামচ দারুচিনি গুঁড়ো একসাথে নিয়ে ব্লেন্ড করে ফেলুন।

পালংশাকের স্মুদি

সবুজ পালংশাকের মজাদার স্মুদি পান করেও বিপাক ক্রিয়ার গতিকে বাড়িয়ে নিতে পারেন। ফ্যাট কমাতে সহায়ক এই স্মুদিটি ক্যালসিয়াম, খাদ্যআঁশ ও প্রোটিনে ভরপুর যা বিপাক ক্রিয়ার গতিকে বৃদ্ধি করার জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।

  • –   ২ কাপ কাঁচা কচি পালংশাক, আধা কাপ টকদই, একটা ছোট কলা একসাথে নিয়ে ব্লেন্ড করে নিন। যদি বেশি ঘন মনে হয় তাহলে সামান্য পানি যোগ করে নিন।

পেঁপের স্মুদি

কোন অনুষ্ঠানে দাওয়াত খেয়ে এসে যদি বেশি খাওয়া হয়ে যায় বা পেট ফাঁপা থাকে তাহলে হজমের সহায়তার জন্য এক গ্লাস পেঁপের জুস পান করে নিন।

ভেগান মিল্কশেক স্মুদি

এই স্মুদির উপকরণ গুলো সব উদ্ভিদ উৎস থেকে নেয়া। যদি সকালের নাস্তায় স্বাস্থ্যকর অথচ মজাদার কিছু খেতে চান এটি হচ্ছে উত্তম একটি স্মুদি।

  • –   এক কাপ সয়া দুধ, একটা ফ্রিজে রাখা ঠাণ্ডা কলা এবং ১ টেবিল চামচ পিনাট বাটার একসাথে নিয়ে ব্লেন্ড করা বানিয়ে নিন চমৎকার এই স্মুদিটি। মজাদার স্বাদের উচ্চ প্রোটিন যুক্ত এই স্মুদিটি বিপাক ক্রিয়ারগতি বাড়াতে সাহায্য করে।

পাউরুটি এবং কলার স্মুদি

যদি আপনি কোন তৃপ্তিকর স্বাদ ও গন্ধের কিছু খুঁজেন থাকেন তাহলে হোল গ্রেইন পাউরুটি ও কলার স্মুদি হচ্ছে উত্তম। সাধারণত সকালের নাস্তার স্মুদিগুলো হতে হয় কম ক্যালরি যুক্ত কিন্তু স্বাস্থ্যকর ফ্যাট, প্রোটিন এবং খাদ্য আঁশযুক্ত। তাই এটি হচ্ছে সারাদিনের দিনের জন্য সঠিক কর্মশক্তি প্রদান করার মত একটি স্মুদি।

পেটের মেদ কমানোর স্মুদি

পাকস্থলী এমন একটি জায়গা যেখানে এসে সব ফ্যাট জমা হয়। তাই পেটে মেদ কমানোর স্মুদি দিয়ে দিনের শুরু করে পাকস্থলীর সেই সব মেদ বের করে দিন শরীর থেকে। পেটের মেদ কমানোর অনেক ধরনের স্মুদি রয়েছে। যেকোনো একটি খেতে পারেন।

  • –   এক কাপ ননফ্যাট দুধ, এক কাপ ঠাণ্ডা স্ট্রবেরি এবং ২ চা চামচ তিসির তেল একসাথে নিয়ে ব্লেন্ড করে খেতে পারেন।
  • –   আধা কাপ ননফ্যাট দুধ, আধা কাপ ননফ্যাট টক দই, ১/৪ পাকা কলা, ১ টেবিল চামচ মধু এবং ৪ টি আইস কিউব এক সাথে নিয়ে ব্লেন্ড করুন।

আপেল-দারুচিনি স্মুদি

ওজন কমানোর জন্য খুব মজাদার এবং কার্যকরী একটি স্মুদি এটি। খুব সহজেই ও কম সময়ে তৈরি করা যায়।

  • –   একটি আপেল টুকরো করে নিয়ে তাতে সামান্য একটু ননফ্যাট দুধ এবং ২ চা চামচ দারুচিনি গুঁড়ো দিয়ে ব্লেন্ড করে তৈরি করে ফেলুন মজাদার স্মুদি। চাইলে ১ চা চামচ মধু যোগ করতে পারেন এতে।

তোকমা এবং বেরি স্মুদি

অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ এই স্মুদি থেকে আপনি বাড়তি উপকারিতা পেতে পারেন। বিস্ময়কর এই তোকমা বীজটি খাদ্যআঁশ এবং প্রোটিনে ভরপুর এবং সেই সাথে বিপাক ক্রিয়া বাড়াতে সাহায্য করে। এছাড়াও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ এই স্মুদি পান করার ফলে ত্বক হবে মসৃণ এবং উজ্জ্বল।

  • –   এক কাপ ঠাণ্ডা যেকোনো বেরি ফল নিন। এর সাথে আধা কাপ পানি এবং আধা টেবিল চামচ তোকমা বীজ নিয়ে ব্লেন্ড করুন। আবার এর সাথে আধা কাপ ডালিমের রস মেশাতে পারেন চাইলে।

বেরি জুস

ফ্যাট কমাতে সাহায্য করে আরো একটি জুস সেটা হলো বেরি। এই স্বাস্থ্যকর জুসটি খাদ্য আঁশে ভরপুর এবং এটি খেলে অনেক্ষণ পর্যন্ত পেট ভরা থাকে।

আপেল, তিসিবীজ এবং দারুচিনির স্মুদি

আপেল এবং দারুচিনি দেহের ফ্যাট কমানোর ক্ষমতাকে বাড়িয়ে দেয়। সেই আপেল আর দারুচিনির স্মুদির সাথে যদি সামান্য কিছুটা তিসিবীজ যোগ করা হয় তাহলে আরো চমকপ্রদ ফল পাবেন। কারণ এই স্মুদি ক্ষুধা কমিয়ে দিতে সাহায্য করে।

 

 

দেহের ওজন কমাতে এবং ফ্যাট বার্ন করতে উল্লেখিত স্মুদিগুলো খুবই চমকপ্রদ ফল দেয় এবং সেই সাথে দেহকে রাখবে শক্তিশালী ও তারুণ্যদ্দোম।

 

লেখিকা

শওকত আরা সাঈদা(লোপা)

জনস্বাস্থ্য পুষ্টিবিদ

এক্স ডায়েটিশিয়ান,পারসোনা হেল্‌থ

খাদ্য ও পুষ্টিবিজ্ঞান(স্নাতকোত্তর)(এমপিএইচ)

 

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top