সকালে স্বাস্থ্য সুরক্ষার টুকিটাকি

শিরোনাম পড়ে একটু অবাক হওয়ারই কথা। না হলে শুধু সকালেই কেন স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা বলা হবে। কিন্তু এটি সত্যি যে, সকালে  সাধারণ কিছু স্বাস্থ্য সমস্যা দেখাই যায়। যেমন-কোষ্ঠকাঠিন্য, পেটে গ্যাসের সমস্যা, মুখে দুর্গন্ধ,  ব্রণ ওঠা, তেলতেলে ত্বক ও শেভ করতে গিয়ে কেটে যাওয়া ইত্যাদি। দিনের শুরুতেই যদি এমন শারীরিক সমস্যা দেখা দেয় তাহলে বলাই বাহুল্য যে সারাদিন মেজাজটাও খিটখিটে থাকে। চলুন, জেনে নিই এই ছয়টি  সমস্যার সমাধান।
১) যাদের কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা এবং এই কারণে সকাল বেলাটা খুব খারাপ কাটে, তারা আগের দিন রাতেই একটি কাজ করে রাখবেন। ইসুপগুলের ভুষি রাতে শোয়ার আগে এক গ্লাস খেয়ে নেবেন। আশা করা যায়, এতেই সকালে কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যা অনেকটাই লাঘব হবে। এই কাজটি নিয়মিত করতে হবে। আর সকালে টয়লেট করতে যাওয়ার আগে গরম দুধ বা এক কাপ রঙ চা খেয়ে নিলেও আরাম পাবেন।
২) ঘুম থেকে উঠেই দেখলেন মুখে অনেক বড় একটা ব্রণ। কী করবেন? প্রথমত ব্রণে হাত দেবেন না। মুখ ভালো করে ধুয়ে নিন। তারপর মুখে মিনিট পাঁচেক গরম পানির ভাপ নিন। তারপর তোয়ালে দিয়ে আলতো হাতে ব্রণের ওপরে চাপ দিন। এতে ব্রণের ভেতরকার দূষিত পদার্থ বের হয়ে আসবে। এবার অ্যান্টিসেপটিক জাতীয় কিছু দিয়ে জায়গাটা পরিষ্কার করে নিন। এতে ফুলবে না ও ব্যথা হবে না। তবে নিতান্ত প্রয়োজন না থাকলে ব্রণকে ব্রণের মতোই থাকতে দিন। এটি আস্তে আস্তে সেরে যাবে।
৩) ঘুম থেকে উঠেই যদি দেখেন মুখে জমে আছে এক গাদা তেল, তাহলে বাকি দিনটাও মুখ থাকে তেলতেলে? হালকা উষ্ণ পানিতে লবণ মিশিয়ে নিন। এই লবণ মেশানো পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন কয়েকবার। তারপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে মুছে নিন। ব্যস, বাকি দিন আর তেলতেলে মুখের সমস্যা হবে না।
৪) রাতের হাবিজাবি খাওয়ায় পেটে গ্যাস জমেছে? একটু পরপর ভুটভাট শব্দ হচ্ছে আর বায়ু নির্গত করছেন? নাস্তা খাওয়ার সাথে খেয়ে নিন কয়েক চামচ টক দই। সারাদিন আর কারো সামনে বিব্রত হতে হবে না।
৫) মুখের দুর্গন্ধ ব্রাশ করার পরও যাচ্ছে না? পানি লবঙ্গ, এলাচি, দারুচিনি ও কমলার খোসা দিয়ে ফুটিয়ে নিন। চাইলে ফ্রিজেও তৈরি করে রাখতে পারেন। রোজ সকালে এই মিশ্রণ দিয়ে ভালো করে কুলি করে নিন। আবার এই মশলা ও আদা দিয়ে রঙ চা পান করতে পারেন। এতেও সহজেই মুখের দুর্গন্ধ দূর হবে।
৬) শেভ করতে গিয়ে অনেক সময় কেটে যায়। শেভ করার আগে মুখে খানিকটা ভ্যাসলিন মেখে নিন। তারপর মুখে শেভিং ফোম বা সাবান ঘষে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন। এরপর শেভ করুন। চটজলদি কাজ হয়ে যাবে।
কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top