সুস্থতার জন্য দই

দইয়ে রয়েছে কার্বোহাইড্রেড, প্রোটিন, সোডিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম, ভিটামিন এ, ডি, ই এবং শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় আরও বিভিন্ন উপাদান। নিয়মিত দই খেলে শরীর সুস্থ থাকে। জেনে নিন দইয়ের গুণাগুণ-

দাঁতের সুস্থতায়
দইয়ে রয়েছে ফসফরাস ও ক্যালসিয়াম। দাঁত শক্তিশালী করতে সাহায্য করে এ দুটি উপাদান। আর জানেনই তো, সুস্থ দাঁত মানেই সুন্দর হাসি!

চুল ও ত্বকের সুস্থতায়
ভিটামিন ই, ফসফরাস এবং জিঙ্ক ত্বক ও চুল ভালো রাখে। দইয়ে এ উপাদানগুলো রয়েছে প্রচুর পরিমাণে। প্রতিদিন এক কাপ দই খেলে চুল ও ত্বক প্রাকৃতিকভাবে উজ্জ্বল ও সুস্থ থাকবে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে
নিয়মিত দই খেলে দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। ক্ষতিকারক রোগজীবাণুকে দেহে বাসা বাঁধতে দেয় না দইয়ে থাকা বিভিন্ন প্রয়োজনীয় উপাদান।

দুধের বিকল্প হিসেবে
অনেকে দুধ পান করতে পছন্দ করেন না। অনেকের আবার দুধ হজম করতেও সমস্যা হয়। তাদের জন্য চমৎকার বিকল্প হতে পারে দই। দই ল্যাকটোসকে ল্যাকটিক অ্যাসিডে পরিণত করে। ফলে দ্রুত হজম হয় এটি।

হৃদযন্ত্রের সুস্থতায়
বর্তমানে বিভিন্ন ধরনের অনিয়মের কারণে কম বয়সেই হৃদরোগে ভোগেন অনেকে। দই দূরে রাখবে হৃদরোগকে। নিয়মিত দই খেলে ধমনীতে ক্ষতিকারক কোলেস্টেরল জমতে পারে না। ফলে উচ্চ রক্তচাপের মতো রোগ থেকে মুক্তি মেলে।

ওজন কমাতে  
দইয়ে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম রয়েছে। সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গেছে, প্রতিদিন ১৮ আউন্স দই খেলে পেটের অতিরিক্ত মেদ কমে যায়।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top