উচ্চ কোলেস্টেরলের যত উপসর্গ

রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা বেড়ে গেলে হৃদরোগ, উচ্চ রক্তচাপ, স্ট্রোক ও ধমনিসংক্রান্ত রোগের ঝুঁকি বাড়ে। এ কারণে এটি নিয়ন্ত্রণে রাখা খুবই জরুরি।

সাধারণত রক্ত পরীক্ষার মাধ্যমে জানা যাবে কারও উচ্চ কোলেস্টেরল আছে কিনা। তারপরও কারো কারো ক্ষেত্রে উচ্চ কোলেস্টেরল থাকলে কিছু লক্ষণ প্রকাশ পায়। যেমন-

১. শুধু জণ্ডিস নয় উচ্চ কোলেস্টেরল থাকলে চোখের নীচে হলদেটে ভাব দেখা দেয়।এতে দেখতে কোনও সমস্যা হয় না। তবে দীর্ঘদিন চোখ এমন থাকলে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়া উচিত।

২. কর্ণিয়ার চারপাশে ধূসর দাগ পড়াও উচ্চ কোলেস্টেরলের লক্ষণ প্রকাশ করে।

৩. রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা বেড়ে গেলে অনেকসময় রক্তনালী আটকে যায়।তখন মস্তিষ্কে রক্ত চলাচল বাধাগ্রস্ত হয়।এতে ঘাড় এবং মাথার পেছনে ব্যথা হয়। এমন হলে কাঁধেও ব্যথা এবং অস্বস্তিকর অনুভূতি হতে পারে।

৪. বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই হৃৎস্পন্দন বেড়ে যাওয়া ক্ষতিকর হয় না। শারীরিক পরিশ্রম, ব্যায়াম কিংবা অনেক সময় টেনশনের কারণেও এটা হয়। তবে কখনও কখনও শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা বেড়ে গেলেও অনিয়মিত হৃৎস্পন্দন হতে পারে, যা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ।

৫. আপনি যদি অতিরিক্ত ফ্যাটি খাবার খান এবং ফলমূল ও শাকসবজি না খান তাহলে যেকোন সময় শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা বেড়ে যেতে পারে। এছাড়া নিয়মিত ধূমপান, অ্যালকোহল পানের কারণেও শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়ার আশঙ্কা থাকে। সূত্র : হেলদিবিল্ডার্জড

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top