শিশুর ঈদ আনন্দ

ঈদ মানেই আনন্দ। কথাটি বড়দের চেয়ে শিশুদের বেলায় একটু বেশি প্রযোজ্য। বাড়ির অন্যান্য সদস্যের আগে তাদের পছন্দের জামা, ক্লিপ, চুড়ি, টিপ বাজার ঘুরে কেনার আবদার থাকে। এক্ষেত্রে বাধে আরেক বিপত্তি, পোশাক কিনতে গেলে বাবা মার পছন্দ হলেও অনেক সময় বাচ্চার পছন্দ হয়না। প্রিয় পুতুল, কার্টুনের চরিত্রের পোশাকের মতোই পোশাক কেনার বায়না ধরে। তাই পোশাক কেনার আগে বাচ্চার পছন্দের কথাও মাথায় রাখতে হবে। বাচ্চারা সাধারণত রঙ বেরঙের পোশাক পছন্দ করে। তাই তাদের পোশাক কেনার সময় রঙের বিষয়টি প্রাধান্য দিন। পাশাপাশি পোশাকটি পরে যেন বাচ্চা আরাম পায় তাও খেয়াল রাখতে হবে।

রঙের ক্ষেত্রে রাতের পোশাকের জন্যে লাল, নীল বা কমলা রঙ বাছাই করতে পারেন। দিনে পরার জন্যে হালকা নীল, গোলাপি, বেগুনী রঙের পোশাক কেনা যেতে পারে। গরমের কথা মাথায় রেখে মেয়েদের জন্য প্রিন্টের ফ্রেই ভালো। পাশাপাশি নেট বা সিল্কের কাপড়ের জামাও কিনতে পারেন। ঈদের সময় শিশুরা সারাদিন ঘোরাঘুরি, দৌড়াদৌড়ি করবে। পোশাকটি পরে যেন শিশু অস্বস্তি বোধ না করে তা খেয়াল রাখতে হবে।

মেয়ে বাচ্চাদের আরামের জন্য নানা ধরনের স্টাইলিশ স্কার্ট কিনতে পারেন। নরম কাপড়ের স্কার্টে শিশু আরাম পাবে, দেখতেও স্মার্ট লাগবে। পোশাকের সঙ্গে বাচ্চার খুব বেশি সাজগোজের দরকার নেই। বাচ্চা চাইলে গলায় ছোট একটি মালা আর কপালে টিপ পরিয়ে দিতে পারেন। চুলগুলি ঝুঁটি অথবা ছাড়া থাকলেও মানাবে। চুল ছাড়া রেখে মাথা ভর্তি ক্লিপ লাগিয়ে দিতে পারেন। এটুকুতেই সুন্দর দেখাবে আপনার সোনামণিকে।

ছেলে শিশুদের জন্যে সাধারণত দু’ধরনের পোশাক কিনতে হয়। ঈদের নামাজের জন্য সাদা বা নীল রঙের পাঞ্জাবি কিনতে পারেন। নামাজ শেষে ঘোরাঘুরির জন্য টি শার্ট বা শার্ট কেনা যেতে পারে। শার্ট কিনলে অবশ্যই হাফ হাতা দেখে কিনুন। ছিমছাম পোশাকে তাদের ঈদ হবে পুরোটায় আনন্দময়।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top