গোলাপ জলের ছয় গুণ

রাজা-বাদশার আমল থেকেই রুপচর্চায় গোলাপ জল ব্যবহার হয়ে আসছে। গোলাপ জল প্রাকৃতিকভাবে ত্বকের বিষাক্ততা দূর করে ত্বক উজ্জ্বল ও মসৃন করে তোলে। ত্বক ভালো রাখতে চাইলে আজ থেকেই ব্যবহার করুন গোলাপ জল।

গোলাপ জলে প্রদাহ বিরোধী উপাদান রয়েছে যা ত্বকে র‌্যাশ বা চুলকানি কমাতে বা ত্বক পুড়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করে৷

গোলাপ জলে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘সি’ রয়েছে। যা ত্বকের কালো দাগ দূর করে ত্বকের সতেজতা ফিরিয়ে আনে। এছাড়া শরীরকে শীতল রাখতে চাইলে ত্বকে গোলাপ জল ছোঁয়াতে ভুলবেন না।

ত্বকের বলি রেখা দূর করতে চাইলে প্রতিদিন সমপরিমান দই, অলিভ অয়েল ও গোলাপ জলের মিশ্রণ মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

ত্বকের প্রধান শত্রু হিসেবে বিবেচিত হয় ধূলো-ময়লা। ত্বকের গভীর থেকে ময়লা পরিষ্কার করতে পারে গোলাপ জল৷এটি ত্বকের অতিরিক্ত তেল ও ময়লা বের করে আনে৷ফলে ব্রণের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়৷ টোনার হিসেবে আধাকাপ গোলাপ জল, একটি পাতিলেবুর রস ও এক ফোঁটা মধুর মিশ্রণ ত্বকে লাগিয়ে ১৫মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

ত্বকে পুষ্টির যোগান দিয়ে শুষ্কতা ও ফেটে যাওয়ার হাত থেকে আপনাকে পরিত্রাণ দিতে পারে গোলাপজল। এক্ষেত্রে ৩চা চামচ গাজরের রসের সঙ্গে ২চা চামচ বেসন,২চা চামচ মধু ও ১চা চামচ গোলাপ জলের মিশ্রন ত্বকে লাগিয়ে ১০মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।

গরমে মুখের ক্লান্তির ছাপ দূর করে চেহারায় ফ্রেশ লুক আনতে ডাবের পানি, সামান্য গোলাপজল ও বরফ পানির সঙ্গে মিশিয়ে ত্বকে ১০ থেকে ১২ মিনিট ম্যাসাজ করুন।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top