বাড়ছে স্বামীর সঙ্গে প্রতারণার হার

সঙ্গীর সঙ্গে সুখে দুঃখে পুরোটা জীবন পার করার আশায় মানুষ বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হয়। সুখী হতে উভয়ের থাকে সমান অংশীদারিত্ব। কিন্তু একজন যদি সংসারের প্রতি অন্যমনস্ক হয়, তবে সংসারে শান্তি টিকে থাকা কষ্টকর। তার চেয়ে বেশি ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয় সঙ্গীনী যদি দিনের পর দিন সঙ্গীকে প্রতারণা করতে থাকে। সম্প্রতি প্রকাশিত এক জরিপে দেখা গেছে, টাকার বিনিময়ে পাওয়া রাতপরীর চেয়েও ঘরের স্ত্রীর কাছে স্বামীদের ধোকা খাওয়ার হার বেড়ে গেছে।

স্বামীর সঙ্গে বিবাহিতা নারীদের এমন আচরণ আসলেই অবাক করে দেয়। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাজুয়াল এনকাউন্টার নামে একটি ওয়েবসাইট জরিপটি চালিয়ে এই তথ্য প্রকাশ করেছে। এই তথ্যে বলা হয়েছে, প্রতারণার এই প্রবণতা চল্লিশের কাছাকাছি বয়সের নারীর মধ্যে বেশি দেখা যায়।

এই তথ্য জরিপের বিপরীতে নারীরা বলছেন, তাদের প্রতারণার একমাত্র কারণ হল স্বামীর প্রতি কোনো ভালোবাসা অনুভব না করা। কারণ হিসেবে তারা বলেন- বিয়ের কারণে নারীরা স্বামীর কাছে সহজলভ্য হয়ে যায়। তখন স্বামীরা তাদের প্রতি খুবই ক্ষীণ আবেগের প্রকাশটা ঘটান। আর সেই কারণেই স্বামীর সঙ্গে এমন ভয়াবহ প্রতারণা করে থাকে। একসময় দেখা যায়- স্বামীর অজান্তেই অন্য পুরুষের সঙ্গে গভীর সম্পর্কে জড়িয়ে যাওয়া, মনে না চাইলেও স্বামীর সঙ্গে ভালোবাসার অভিনয় করা, কখনো আবার তাদেরকে ত্যাগ করার মতো ঘটনা ঘটে।

সমীক্ষায় প্রমাণ মিলেছে, ২১ শতাংশ পুরুষের বিয়ে ছাড়াও অন্য একটি সম্পর্কে জড়িত থাকেন। তবে নারীরা এদিক থেকে আরও ১৫ শতাংশ এগিয়ে অর্থাৎ ৩৬ শতাংশে থাকেন। এরই ধারাবাহিকতায় ভারতীয় উপমহাদেশে গত দুই দশকে এই মাত্রা বেড়ে চলেছে উল্লেখযোগ্য হারে।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top