যে লক্ষণগুলো বলে দেবে আপনি ভুল মানুষটিকে বিয়ে করতে যাচ্ছেন

বিয়ে পুরো জীবনের একটি বন্ধন। বিয়ের অর্থ শুধুই দুটি মানুষের একসাথে একই ঘরে থাকা নয়। বিয়ে হচ্ছে দুজন দুজনকে বুঝে নিয়ে একইসাথে পাশাপাশি পথ চলার নাম। তাই সঠিক মানুষকে বিয়ে করা খুবই জরুরী। এতে যদি অনেক সময়ও লাগে তাও ভালো। কারন যদি ভুল মানুষের সাথে বিয়ে হয় তবে পুরো জীবন কষ্ট পাওয়া ছাড়া পথ খোলা থাকে না। আর তাই বিয়ের সিদ্ধান্ত খুবই ভেবে চিন্তে নেয়া জরুরী। আপনার জন্য সামনের মানুষটি পারফেক্ট কিনা তা বুঝে নেয়াও জরুরী। কিন্তু কীভাবে বুঝবেন তিনি আপনার জন্য সঠিক কিনা? তাহলে জেনে নিন কিছু লক্ষণ সম্পর্কে যা প্রমাণ করবে তিনি আপনার জন্য সঠিক নন।

১) আপনি যদি ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করেন তখন আপনি নিজেকে কোথায় দেখতে পান? আপনি কি ভয় পান যে আপনি ভবিষ্যতে একা কাটাবেন আপনার জীবন? এই ভয় মনে কাজ করলে বিয়ে করবেন না।

২) আপনার হবু সঙ্গীটি কি মানসিক চাপ নেয়ার ব্যাপারে অনেক বেশী রিঅ্যাক্ট করেন? তিনি কি একেবারেই মানসিক চাপ সহ্য করতে পারেন না বা মানসিক চাপের সময় তিনি একেবারে অন্য কেউ হয়ে যান? তাহলে এই বিয়ের ব্যাপারে দ্বিতীয়বার ভেবে দেখুন। কারণ জীবনে এমন অনেক সমস্যা আসবে যা হয়তো তিনি সহ্য করতে না পেরে অনেক উলটো পাল্টা কাজ করে ফেলতে পারেন যা আপনাদের সম্পর্ক নষ্ট করে দেবে।

৩) যদি আপনার জীবনসঙ্গীর আপনাকে নিয়ে ভবিষ্যতের কোনো পরিকল্পনা না করে থাকেন তাহলে বুঝে নেবেন তার নিজের অন্য কোনো পরিকল্পনা রয়েছে, বিয়ে করা তার মধ্যে নেই। যদিও ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করেও রাখলে অনেক ক্ষেত্রেই তা হয় না। কিন্তু চিন্তা করাটাও অনেক সময় বিশ্বাস যোগায় মনে।

৪) সঙ্গীটি যদি অনেক বেশী খুঁতখুঁতে স্বভাবের হয়ে থাকে তাহলে বিয়ের ব্যাপারে আরও একবার ভালো করে ভেবে দেখুন। কারণ যারা অনেক খুঁতখুঁতে স্বভাবের হয়ে থাকেন তাদেরকে কোনো কিছু দিয়েই খুশি করা সম্ভব হয় না। যার ফলে সম্পর্ক টেনে নেয়া দুর্বিষহ হয়ে উঠে।

৫) আপনার মন কি বলে একটি বার ভেবে দেখুন। কারন অনেক সময় অবচেতন মন থেকে সায় পাওয়া যায় না। এই অবচেতন মনে ডাক অনেকেই অবহেলা করে থাকেন। কিন্তু তা একেবারেই উচিত নয়। অনেক ক্ষেত্রে এই অবচেতন মন সঠিক কথাটিই বলে থাকে।

সূত্র: knowmyself.com

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top