ঈদের ছুটিতে হয়ে যাক মধুচন্দ্রিমা

বিয়ের পর ব্যস্ততা, অর্থের অভাব, ইচ্ছা বা ছুটি না থাকায় মধুচন্দ্রিমায় যাওয়া হয় না অনেক দম্পতির। বিয়ের বছর পেরুতেই অনেকে আবার ব্যস্ত হয়ে যান ঘরে নতুন অতিথির আগমনে। ফলে পরবর্তীতে এই সুযোগ আর মেলে না। কিন্তু তারা আফসোসে ভুগতে থাকেন। তাই যাদের মধুচন্দ্রিমায় যাওয়া হয়নি তারা এবারের ঈদের ছুটিতে ঘুরে আসতে পারেন। তার আগে জেনে নিন কেন বিয়ের পর দম্পতিদের মধুচন্দ্রিমায় যাওয়া দরকার।

মধুচন্দ্রিমা যে শুধু আনন্দের ভ্রমণ তা নয়, স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ভালো একটা বোঝাপড়ারও সুযোগ বটে। বিয়ের পর সাধারণত পরিবারের সঙ্গে থাকায় স্বামী-স্ত্রী একান্তে সময় কাটাতে পারেন না। মধুচন্দ্রিমায় গেলে স্বামী-স্ত্রী এই সুযোগটা খুব দারুণভাবে পেয়ে যান। বিয়ের পর সংসার শুরুর আগে দুজনের পছন্দ-অপছন্দগুলোও জানা হয়ে যায়। সংসারে সুখী হতে উভয়ের ভালোলাগা-মন্দলাগা বিষয়গুলো জানা একান্ত জরুরি।

নতুন জায়গায় গেলে নতুন নতুন অভিজ্ঞতা হয়। মধুচন্দ্রিমা থেকে ফিরে আনন্দময় স্মৃতির পাতা মনের মাঝে থাকে অমলিন। অবসরে মাঝে মাঝেই ভালো লাগার অনুভূতির মাঝে হারিয়ে যাওয়া যায়। এতে সম্পর্ক খানিকটা মজবুত হয়।

এছাড়া মধুচন্দ্রিমার ছবিগুলো পরবর্তীতে মহাকাব্যিক হয়ে থাকে। নিজেরা সময় পেলে যখন ছবিগুলো দেখবেন তখন রোমান্টিকতা বাড়িয়ে দেবে অনেকখানি।

সারাবছর একসঙ্গে ছুটি পাওয়া মুশকিল। ঈদের ছুটিটা তাই মধুচন্দ্রিমায় কাজে লাগাতে পারেন।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top