নতুন নতুন প্রেমে পড়েছেন? নিজের ভালো চাইলে অবশ্যই মেনে চলুন এই ৫টি বিষয়

প্রেম ভালোবাসা অনেক পবিত্র একটি বিষয়। মনের মিল এবং একে অপরের প্রতি আকর্ষণের মাধ্যমেই গড়ে ওঠে প্রেমের সম্পর্ক। যদি সঠিক মানুষটির সাথে প্রেম হয় তবে এই আকর্ষণ বিন্দু মাত্র না কমে বেড়েই চলতে থাকে। ভালোবাসা গভীর হয়। একটা সময় মনে হয় একে অপরকে ছাড়া মনে হয় জীবন যাপন সম্ভব নয়। কিন্তু যদি সঠিক মানুষটির সাথে প্রেম না হয় তবে আকর্ষণটা ফিকে হয়ে আসে, প্রেমের সম্পর্কটি দিনে দিনে বিষাক্ত হয়ে যায়।

মানুষটি সঠিক হোক বা না হোক, অনেক সময় নিজেদের কিছু ভুলে পরস্পরের আকর্ষণটা কমে আসে। ব্যবহার, আচার আচরণ, বোঝার ক্ষমতা ইত্যাদি কারণে মানুষটি সঠিক না হলেও কিন্তু জীবন মানিয়ে নেয় তার সাথেই। তাই সম্পর্কে আপনারা একে অপরের সাথে কী ধরণের আচরণ করছেন এবং কতোটুকু বুঝতে পারছেন তা সম্পর্কে গভীরতা আনার জন্য অনেকাংশে দায়ী থাকে। এবং তা শুরু হয় প্রেমের শুরু থেকেই। চলুন আজ দেখে নেয়া যাক নতুন প্রেমে পড়লে কোন কোন বিষয়গুলো অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে। এই বিষয়গুলো মেনে না চললে নিজেকে বড় ধরণের ঝামেলায় ফেলে দিতে পারেন আপনি।

প্রথমেই খুব বেশি বাধ্য হয়ে যাবেন না

অনেকেই আছেন যারা বিনা বাক্য ব্যয়ে নিজের প্রেমিক বা প্রেমিকার কথা মেনে নিয়ে থাকেন। ন্যায় অন্যায় কোনো কিছুই বিচার করেন না। এভাবে প্রেমিক/প্রেমিকার সকল কথা বিনা বাক্য ব্যয়ে মেনে নেয়ার অর্থ আপনি তার কাছে প্রকাশ করে দিচ্ছেন আপনি তার প্রতি কতোটা দুর্বল। যদি তিনি সঠিক ব্যক্তি না হয়ে থাকেন তবে তিনি আপনার এই ভালো ব্যবহারের বিপরীতে আপনাকে ব্যবহার করা শুরু করতে পারেন। তাই প্রথমেই অনুগত হয়ে থাকবেন না। আগে নিজের সঙ্গীটিকে বুঝে নিন।

অতিরিক্ত নির্ভরশীল হয়ে পড়বেন না

যখন আপনি একজন মানুষের ওপর অনেক বেশি নির্ভরশীল হয়ে পড়বেন তখন তার কাছ আপনার মূল্য আপনাআপনিই কমে আসবে। এই ভুলটি করতে যাবেন না একেবারেই। আপনি প্রেমের শুরুতেই তার প্রতি নির্ভরশীল হয়ে পড়লে তিনি আপনাকে বিনা দ্বিধায় কষ্ট দিয়ে যেতে পারবেন কারণ। তিনি বুঝে যাবেন আপনার অন্য কোনো পথ খোলা নেই। আপনি কষ্ট পেলেও তার প্রতিই নির্ভরশীল থাকবেন।

নিজের যাবতীয় গোপন তথ্য প্রকাশ করবেন না

প্রেমিক প্রেমিকার মধ্যে কিছুটা গোপনীয়তা থাকা আবশ্যক। এবং অবশ্যই সম্পর্কের শুরুতেই নিজের সম্পর্কিত সকল তথ্য তাকে দিয়ে দেবেন না। কারণ আপনার প্রেমিক/প্রেমিকা আসলেই কতোটা বিশ্বাসযোগ্য তা বোঝার জন্যও সময়ের প্রয়োজন হয়। প্রথমেই আপনি নিজের সম্পর্কে সব তথ্য দিয়ে দিলে আপনি নিজের ব্যক্তিত্ব হারাবেন তার কাছে। এবং তিনি মানুষ ভালো না হলে তা দিয়ে আপনার ক্ষতিও করতে পারেন।

প্রথমেই পরিবার পরিজনকে বলে দেবেন না সম্পর্কের কথা

অনেকেই নিজের পরিবারের সাথে অনেক বেশি বন্ধুত্বপূর্ণ থাকেন এবং সম্পর্ক হলেই বলে দিয়ে থাকেন। এটি অবশ্যই একটি ভালো কাজ। কিন্তু এর কিছুটা খারাপ দিকও রয়েছে। ধরুন সম্পর্কের শুরুতেই আপনি জানিয়ে দিলেন আপনার সম্পর্ক হয়েছে কারো সাথে, কিন্তু কিছুদিন পরে কোনো কারণে তার সাথে আপনার ব্রেকআপ হলো। তখন পরিবারকে কী জবাব দেবেন? এবং আপনি যদি বলেন আপনার ব্রেকআপ হয়ে গিয়েছে তাহলে আপনার পরিবার আপনার পছন্দের ওপর আস্থা হারাবে। তাই সম্পর্ক একটি পর্যায়ে না পৌঁছুলে জানাবেন না পরিবারকে।

প্রথমেই শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়ে যাবেন না

এই ভুল কাজটি কখোনোই করবেন না। বর্তমানের আধুনিক যুগে এমন অনেকেই দেখা যায় যারা শুধু মাত্র শারীরিক সম্পর্কের জন্য প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। তাই এই ফাঁদে পা দেবেন না। শারীরিক সম্পর্কে ভুলেও জড়াবেন না নতুন গড়ে ওঠা সম্পর্কে। যদি সঙ্গী শারীরিক সম্পর্কের জন্য চাপ দেন তবে বুঝে নেবেন তিনি আপনার জন্য সঠিক মানুষ নন। আর এমন মানুষের সাথে সম্পর্কে না যাওয়াই ভালো।

 

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top