আপনার ঘরের জন্য যেমন সোফা

বাড়িটি আপনার যেমনই হোক তাকে সাজানো চাই মনের মতো করে। সৌন্দর্য সচেতনরা সাধ্যের মধ্যে থাকার ঘরটি সাজিয়ে নিতে মোটেও ভুল করেন না। সে সাজের একটি বড় অংশ বসার জায়গা। আর বসার জায়গা মানেই চেয়ার বা সোফা সেট। বাড়িতে অতিথি এলে তার বসার জায়গাটা আকর্ষণীয় হলে নিজের মনেও একটা প্রশান্তি কাজ করে। কিন্তু কেমন সোফা রাখবেন বাড়িতে? লিভিং রুম বা ড্রইং রুমের জন্য মানানসই সোফা কেনার সময় যে বিষয়গুলি অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে…

আকার

বাড়ির কোন ঘরে সোফা রাখবেন, সেখানে সোফার জন্য কতোখানি জায়গা আছে তা মাথায় রেখেই উপযুক্ত একটি আকারের সোফা নির্বাচন করতে হবে। সোফা কিনতে যাওয়ার আগে অবশ্যই লিভিং রুমের দৈর্ঘ এবং প্রস্থ মেপে নিতে হবে। ঘর ছোট হলে ছোট ডিজাইনের সোফা কিনতে পারেন। ঘর যদি বড় হয় তবে একটু বড় সোফা মানানসই হবে।

সোফার উপাদান

সোফা কি দিয়ে তৈরি, কাঠ, বেত নাকি লোহা- এসব ব্যাপারে আপনার নিজের পছন্দকে প্রাধান্য দিন। সোফার কুশন কি দিয়ে তৈরি সে ব্যাপারেও খেয়াল রাখুন। সিল্কের কভার একটু খরচ পড়বে বটে, কিন্তু দেখতে অভিজাত লাগবে। অন্যদিকে সুতি কাপড় সুলভ, যত্ন নেওয়াও সহজ কিন্তু এটা সহজে কুঁচকে যায়। এছাড়া সিন্থেটিক লেদারের তৈরি সোফাও কিনতে পারেন। এটা যেমন টেকসই তেমন আরামদায়ক।

প্যাটার্ন

সোফা যদি সবসময় ব্যবহার করা হয় অথবা বাসায় যদি ছোট বাচ্চা থাকে, তবে সোফার কাপড় বা কুশন কভারে হবে বেশ কয়েক রঙের প্যাটার্ন বা চেক। এমন কাপড়ে দাগ পড়লেও সহজে বোঝা না যায়। কম ব্যবহার করা হয় এমন শৌখিন সোফা হতে পারে এক রঙ্গা বা হালকা প্যাটার্নের।

স্টাইল

অন্য সব দিক ভেবে নেয়ার পর স্টাইলের ব্যাপার আসে। এটা অনেকটাই নিজের পছন্দ-অপছন্দের ওপর নির্ভর করে। আপনি পুরনো আমলের মতো কাঠের ডিজাইন নেবেন, নাকি আধুনিক বিমূর্ত ডিজাইন অথবা ধাতব স্টাইল নেবেন। আপনি যদি বেশি ব্যস্ত সময় পার করেন তবে প্লেন ডিজাইন নির্বাচন করতে পারেন। এমন ডিজাইনে অল্প পরিশ্রমেই সোফা ঝকঝকে রাখা যায়।

রঙ

ঘরের দেয়ালের রঙ, অন্যান্য আসবাবপত্রের রঙ সব কিছুর সঙ্গে মিল রেখেই সোফার রঙ বেছে নিতে হবে। হালকা রঙে ভরা একটি ঘরের মাঝে যদি গাঢ় রঙের সোফা বসিয়ে দেন তবে একটু বেমানান লাগবে।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top