হরমোন ভারসাম্যহীনতার সাত লক্ষণ

হরমোন একটি রাসায়নিক পদার্থ। এটি শারীরিক বৃদ্ধি, মেজাজের ওঠানামা, শরীরের তাপমাত্রা, খাবারের বিপাক ইত্যাদিতে প্রভাব ফেলে। হরমোনের ভারসাম্যহীনতার কারণে শরীরে বিভিন্ন সমস্যা হয়। কিছু লক্ষণ দেখলে বোঝা যায়, হরমোন ভারসাম্য হারাচ্ছে। স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট হেলদি ফুড হাউস জানিয়েছে হরমোনের ভারসাম্যহীনতার সাত লক্ষণের কথা।

১. ওজন বাড়া

কেবল বেশি খেলেই মানুষ মুটিয়ে যায় না। কখনো কখনো হরমোনের ভারসাম্যহীনতার কারণেও এটি হতে পারে। তাই স্বল্প পরিমাণ খাবার গ্রহণের পরও যদি মুটিয়ে যান, চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

২. চুল পড়া

হরমোনের ভারসাম্যহীনতার কারণে চুল পড়ে। ডাইহাইড্রোটেস্টোস্টেরন চুল পড়ার জন্য দায়ী। তাই অতিরিক্ত চুল পড়লেও বুঝতে হবে হরমোনের অসুবিধা হচ্ছে।

৩. অতিরিক্ত ঘাম

নারী ও পুরুষ উভয়ের ক্ষেত্রে সেরোটোনিন হরমোনের বেশি বা কম উৎপাদন অতিরিক্ত ঘাম তৈরি করে। এ ছাড়া নারী শরীরে মেনোপজ বা পেরিমেনোপজের সময় হরমোন ভারসাম্যহীন হয়ে পড়ে। তখন অতিরিক্ত ঘাম হয়।

৪. অবসন্নতা

অবসন্নতাও হরমোনের ভারসাম্যহীনতার আরেকটি লক্ষণ। ঘুম ভালো হওয়ার পরও যদি অবসন্ন লাগে, তাহলে হরমোনের ভারসাম্যহীনতার কারণে এটি হতে পারে।

৫. মেজাজ খিটখিটে

বাজে বা খিটখিটে মেজাজ, বিরক্তি, উদ্বিগ্নতা এবং বিষণ্ণতা ইত্যাদি হরমোনের ভারসাম্যহীনতার লক্ষণ। থাইরয়েড গ্রন্থির কম হরমোন উৎপাদনের কারণে এ সমস্যা হয়।

৬. ঘুমের অসুবিধা

ইসট্রোজেন হরমোন ঘুমের বিষয়কে ঠিকঠাক রাখে। এর ভারসাম্যহীনতা ঘুমের অসুবিধা করে। বিশেষ করে মেনোপজ ও পেরিমেনোপজের সময় এ সমস্যা হয়।

৭. হজমে সমস্যা

গ্যাসট্রোইনটেসটাইনাল পদ্ধতিতে তিন ধরনের হরমোন হজমে প্রভাব ফেলে। এদের বলা হয়—গ্যাসট্রিন, স্যাকরেটিন ও কোলেসিস্টোকাইনিন। এগুলো খাবারকে ভাঙতে এবং হজম হতে সাহায্য করে। এসব হরমোনের ভারসাম্যহীনতা হলে হজমে সমস্যা হয়।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top