বডি ল্যাংগুয়েজ ট্রিক্স- হয়ে উঠুন সবার প্রিয়পাত্র

আমরা মানুষকে সারাক্ষণই কিছু না কিছু সিগনাল দিতে থাকি। আমরা হয়ত খেয়ালও করি না, কিন্তু আমাদের তাকানো, কথা বলার ধরণ, হাসি সব কিছু কথা বলে আমাদের হয়ে। অন্যের কাছে তুলে ধরে আমাদের ব্যক্তিত্ব। আমরা যদি একটু সচেতন হই আর বদলে ফেলি এই বডি ল্যাঙ্গুয়েজগুলো তাহলে সহজেই নিজেদের প্রভাব বিস্তার করতে পারব অন্যের উপর। এজন্য রয়েছে দারুণ কিছু ট্রিক্স। যেমন-
সাবধান হন, কিন্তু আচরণে নয়
নতুন মানুষের সাথে পরিচয়ের ক্ষেত্রে আমরা কয়েকটি বিষয় খেয়াল করি। যেমন-
মানুষটি ক্ষতিকর কিনা
তিনি আমার কোন কাজে আসবেন কিনা
বিশ্বাস করা যায় কিনা
সাবধান তো হতেই হবে। তবে কখনোই সেটা প্রকাশ করবেন না আপনার আচরণে। বরং বন্ধুত্বপূর্ণ ব্যবহার করুন। তাহলেই আপনি বরং তাকে জানতে পারবেন।
সবাই আপনার বন্ধু, যতক্ষণ না অন্যকিছু প্রমাণ হয়
মানুষকে বন্ধু ভাবুন। সহজ হোন। আপনার আচরণের সাবলিলতা এমনিতেই অন্যকে আকর্ষণ করবে। প্রতিটা মানুষের কাছ থেকেই শেখার, জানার থাকে অনেক কিছু। তবে হ্যাঁ, খেয়াল করবেন আপনি নিতে গেছেন, হারাতে নয়। যতক্ষণ না পর্যন্ত প্রমাণিত হয় যে, মানুষটি ক্ষতিকর ততক্ষণ ভাল বন্ধু হতে দোষ কি?
সবাই শ্রদ্ধেয়
মানুষকে সম্মান করুন। মানুষক সম্মান করলে কেই খাটো হয় না। বরং সম্মান করার মানসিকতা থেকে আপনি অন্যদের নজরেও হবেন সম্মানিত। আগে থেকে বিচার করে অকারণে কাউকে অসম্মান করবেন না।
অপছন্দের কিছু হওয়ার আগ পর্যন্ত পছন্দ করুন
আমরা প্রায়ই না জেনেই একটা মানুষকে বাদ দিয়ে দিই পছন্দের তালিকা থেকে। এটা আমাদের সম্পর্কে একটা ব্যাড ইম্প্রেশন তৈরি করে। ততক্ষণ পর্যন্ত ভাল সম্পর্ক বজায় রাখুন যতক্ষণ সরাসরি অপছন্দের কিছু না ঘটে।
সোজা হয়ে দাঁড়ান
যখনই উঠে দাড়াবেন অবশ্যই সোজা হয়ে দাড়াবেন। তার মানে এই নয় যে, যন্ত্রের মত দাড়াবেন। স্বাভাবিক মানুষের মত দাঁড়ান। তবে পিঠ সোজা করে এবং মাথা সোজা রেখে।
সোজা হয়ে বসুন
অনেকেই খুব ক্যাজুয়ালি বসেন। আপনি ভাবছেন, এটা তো কিছুই না, কোন সমস্যা না। আপনার সাধারণ একটি অভ্যাস অন্যের কাছে আপনার ইমেজকেও ক্যাজুয়াল করে দিচ্ছে। যখনই বসে আছে পিঠ সোজা করে সুন্দরভাবে বসুন।
যখন প্রবেশ করছেন
রুমে প্রবেশ করার সময় আপনি সকলের মস্তিষ্কেও প্রবেশ করেন। সবাই ঠিক সেই সময় আপনাকে বিচার করতে শুরু করে। এটাকে কাজে লাগান। নিজের পোশাক আকর্ষণীয় করুন, সোজা হেটে প্রবেশ করুন, অবশ্যই প্রবেশের সময় শব্দ করা, ধাক্কা দেওয়াসহ বিব্রতকর পরিস্থিতি এড়িয়ে চলুন।
হাসুন
আপনি কোন পার্টিতে গেছেন। অথবা হয়ত গেছেন রোজকার মত অফিসে। যেখানেই যান না কেন হাসিখুশী থাকুন। অন্যদের যেন মনে হয়, আপনি তাদের সাথে থেকে আনন্দ অনুভব করছেন, আপনার ভাল লাগছে। এতে তারাও আনন্দের সাথে আপনাকে গ্রহণ করবে।
চোখে চোখ রাখুন
কথা বলার সময় চোখে চোখ রেখে কথা বলুন। চোখ নামিয়ে কথা বলা দূর্বলতা প্রকাশ করে। তাই, নতুন মানুষ হোক বা পুরাতন চোখে চোখ রেখে কথা বলুন। সব সময় সরাসরি তাকানোর প্রাক্টিস করুন।
কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top