মহিলারা পুরুষদের অহরহ যে ১০টি মিথ্যা বলে থাকেন

০১. ‘‘এক মিনিটেই রেডি হচ্ছি’’— মহিলাদের বলা সবথেকে বড় মিথ্যা বোধহয় এটাই। কোথাও যেতে সাজুগুজু করতে হলে তাঁরা কেউই এক মিনিটে রেডি হতে পারবেন না। দুই, তিন, চার, পাঁচ…মিনিটের পর মিনিট পেরিয়ে যাবে। অথচ তাঁরা ঠিক বলবেন, ‘‘এক মিনিট। রেডি হয়ে যাব।’’

০২. ওজন নিয়ে কমপ্লেক্স নেই, এমন মহিলা খুঁজে পাওয়া কঠিন। ওজন কত, জানতে চাইলে কি তাঁরা সঠিক তথ্য দেন?

০৩. অনেক সময়ে অকারণে স্রেফ খুচরো মিথ্যা বলে মহিলারা পুরুষদের বিভ্রান্ত করেন। ভালবাসায় এ-ও এক ‘খেলা’। একটু নাকানিচোবানি খাওয়ানো এবং নিজে বসে বসে মজা দেখা— এই আর কী!

০৪. পার্টিতে কার সঙ্গে কী হয়েছিল, এ প্রশ্নের উত্তরে কেউ কি সত্যিটা স্বীকার করবেন? এটা অবশ্য পুরুষদের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য।

০৫. বয়স কত? প্রথমত জানতে চাওয়াই ‘অপরাধ’। আর জানা গেলেও, তার সত্যতা খুঁজে বের করা কঠিন।

০৬. শরীর নয়, মনই সব। এই গোত্রের কথা অনেক মহিলাই পুরুষদের বলে থাকেন। কিন্তু মনস্তত্ত্ব বলছে, বাস্তবসম্মত চিন্তাভাবনায় একটি সম্পর্কে ‘‘মনই সব’’-গোছের কিছু হওয়া কঠিন।শরীর আসবেই।

০৭. অফিসে বসেই দেদার আড্ডা মারেন তাঁরা। ফোনের ওপারে প্রিয় বান্ধবীর সঙ্গে হয়তো শপিংয়ের আড্ডা চলছে। কিন্তু আপনাকে বলে দেওয়া হবে, ‘‘খুব বিজি’’।

০৮. বান্ধবীদের সঙ্গে স্বামী বা প্রেমিককে নিয়ে আলোচনা হয় এবং সেটাই স্বাভাবিক। কিন্তু আপনার সম্পর্কে ঠিক কী বলা হয়? কোনওদিন সঠিক উত্তর পাবেন না।

০৯. বান্ধবীর সঙ্গে কী বিষয়ে ফিসফাস হয়, সে সম্পর্কে প্রশ্ন করলে অবধারিতভাবে মিথ্যা কথাই বলবেন তাঁরা।

১০. প্রাক্তন প্রেমিক (বা কোনও ক্ষেত্রে স্বামী) সম্পর্কে ভাল কিছু থাকলে, তা গোপন করার চেষ্টা করেন। ক্ষেত্রবিশেষে মিথ্যা অভিযোগও করতে শোনা যায়।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top