সম্পর্কে মেয়েদের যা এড়িয়ে চলা প্রয়োজন

অনেক সময় দেখা যায় মেয়েরা তার সঙ্গীর ইচ্ছার কারণে তাদের নিজের ইচ্ছাকে ত্যাগ করেন। সম্পর্কে সুখী হতে হলে মাঝে মাঝে নিজের ইচ্ছাকে ত্যাগ করা উচিত। তবে সঙ্গী যদি জোর করে আপনার ওপর নিজের ইচ্ছা প্রয়োগ করার চেষ্টা করে থাকে, তাহলে তা মেনে নেওয়াটা কিন্তু আপনার জন্য ভুল হবে। কারণ আপনি যদি সঙ্গীর সব ইচ্ছাগুলো এভাবে মেনে নিতে থাকেন আপনি আপনার ব্যক্তিস্বাধীনতা হারিয়ে ফেলবেন।

আমাদের আজকের এই প্রতিবেদনে সঙ্গীর কারণে মেয়েরা যেসব কাজ ভুলেও করবেন না, তার একটি তালিকা প্রকাশ করা হল। একনজরে পরামর্শগুলো দেখে নিতে পারেন-

১. সঙ্গীর ইচ্ছা, আপনি ঘরে বসে সংসার করবেন আর বাচ্চা মানুষ করবেন। এ দুইটা কাজ একেবারে হেলাফেলারও বিষয় না। তবে আপনি যদি ক্যারিয়ার সচেতন হন, তাহলে এগুলোর কারণে নিজের ক্যারিয়ারের কথা ভুলে গেলে চলবে না। আর সঙ্গী যদি জোর করে আপনার এই ইচ্ছা দমিয়ে রাখতে চায়, তাহলে ভুলেও তা মেনে নেবেন না।

২. বাচ্চা নেওয়ার সিদ্ধান্তে দুজনেরই সম্মতি থাকা প্রয়োজন। সঙ্গীর ইচ্ছা আছে বলেই বাচ্চা নিতে হবে এমন বিষয়ে কখনোই সায় দেবেন না। আর সে যদি এ বিষয়ে আপনার ওপর জোর খাটায়, তাহলে তাকে বুঝিয়ে বলার চেষ্টা করুন যে আপনি এখনো এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেননি। তবে এর পেছনের কারণ ব্যাখ্যা করতে ভুলবেন না।

৩. দিনশেষে দুজনে একসঙ্গে খাবেন, সারা দিনের জমানো কথা বলবেন—এটাই স্বাভাবিক। তবে সঙ্গী যদি প্রায় প্রতিদিনই দেরি করে বাসায় ফেরে, তাহলে তার জন্য না খেয়ে বসে থাকবেন না।

৪. আপনার পোশাক নিয়ে সঙ্গীর আপত্তি থাকতে পারে। কিন্তু সে পছন্দ করে না বলে নিজের মনমতো পোশাক পরবেন না, তা কী হয়? তবে সঙ্গীর পছন্দের পোশাকও মাঝেমধ্যে পরতে পারেন। এতে সেও সন্তুষ্ট থাকবে, আর আপনিও নিজের ইচ্ছা পূরণ করতে পারবেন।

৫. অনেকে সময় সঙ্গী অপছন্দ করে বলে মেয়েরা তাঁদের বন্ধু সংখ্যা কমিয়ে ফেলে। সঙ্গীর কারণে এ সিদ্ধান্ত নেওয়াটা ভুল। যদি আপনার বন্ধু ক্ষতিকারক না হয়, তাহলে তাঁকে জীবন থেকে দূরে না সরানোই বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top