যে কারণে রাগ প্রকাশ করা ভালো

‘রেগে গেলেন তো হেরে গেলেন’-এতদিন এই কথাটি হয়তো অনেকবার শুনেছেন। তাইতো কিভাবে রাগ চেপে রাখতে হয় তার চর্চারও শেষ নেই। কিন্তু মনোবিদরা বলছেন ভিন্ন কথা। তাদের মতে রাগও একটি আবেগ। আর এই আবেগ চেপে না রেখে প্রকাশ করে ফেলাই নাকি ভাল। জেনে নিন মনোবিদরা কেন রাগ প্রকাশ করাকে ভাল বলছেন তার কিছু কারণ।

অনুপ্রাণিত করে
রাগ আপনাকে অনুপ্রাণিত করতে পারে। আপনি যা চাইছেন, সেই পথে আপনাকে নিয়ে যেতে পারে আপনার রাগ। তবে এক্ষেত্রে রাগটা অবশ্যই নিজের ওপরে করতে হবে। নিজের ব্যর্থতার ওপরে রাগ করলেই সফলতার পথে এগিয়ে যেতে পারবেন।

হিংস্রতা কমায়
রাগ এবং হিংস্রতা একটি আরেকটির সঙ্গে জড়িত। মানুষ অতিরিক্ত রেগে গেলেই অনেক সময় হিংস্র হয়ে ওঠে। কিন্তু রাগের বহিঃপ্রকাশ হিংস্রতা কমাতেও ভূমিকা রাখে। অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় রাগ চেপে রাখলে মনের ক্ষোভ বাড়তে থাকে। যার ফলাফল হয়ে ভয়ানক। বরং রাগ প্রকাশ করে ফেললেই অনেক হালকা হয়ে যায় মন এবং ভুল বোঝাবোঝির অবসান হয়।

বিরক্তি কমায়
ধরুন আপনি কারও ওপর রেগে আছেন। কিন্তু প্রকাশ করছেন না কিছুতেই। এতে ওই মানুষটির প্রতি আপনার বিরক্তি দিন দিন বাড়তেই থাকে। বরং রাগ প্রকাশ করে ফেললেই বিরক্তিটা কমে যায় এবং সম্পর্কটা সহজ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

সম্পর্ক ভাল থাকে
আপনার খুব কাছের মানুষের ওপর যদি আপনি দীর্ঘদিন ধরে রেগে থাকেন এবং রাগ প্রকাশ না করেন, তাহলে সম্পর্কের অবনতি হয়। তার সব কাজেই আপনি বিরক্ত হওয়া শুরু করবেন। তাকে রীতিমতো অসহ্য লাগবে আপনার। ফলে সম্পর্কটা ভেঙ্গে যাওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যাবে। বরং যখন কোনো কিছু নিয়ে রাগ হবে সেটা প্রকাশ করুন। এতে দুজনে মিলে সমাধান খুঁজে বের করতে পারবেন। সম্পর্কটাও থাকবে অটুট।

শরীর ভাল থাকবে
রাগ হলো বিষের মতো। চেপে রাখলে শরীরের ক্ষতি করবে, আর প্রকাশ করলে তা আর ক্ষতি করতে পারবে না। অনেকদিন ধরে রাগ পুষে রাখলে হৃদপিণ্ডের জটিলতা, উচ্চ রক্তচাপ, হজমের সমস্যা, মাথা ব্যথার মতো সমস্যা হতে পারে। একারণে রাগ পুষে না রাখাই বুদ্ধিমানের কাজ। টাইমস অব ইন্ডিয়া।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top