এই গরমে শরীরের দুর্গন্ধ দূরে রাখতে জেনে নিন ৫টি জরুরী টিপস

গরমের সময় নিজেকে ফ্রেশ রাখতে কে না চায়? ফ্রেশ থাকার জন্য প্রথমেই অতিরিক্ত ঘামের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া দরকার। প্যাচপ্যাচে গরমে ঘেমে এমনিতেই মেজাজ খারাপ হয়ে যায়, তার ওপর ঘামের দুর্গন্ধ আরো সমস্যা তৈরি করে। আসলে ঘাম নিঃসরণের মাধ্যমে শরীর নিজেকে ঠাণ্ডা রাখে। আমাদের ত্বকে দুই ধরনের ‘সোয়েট গ্ল্যান্ড’ রয়েছে। হাত, পায়ের তালুতে এক ধরনের গ্ল্যান্ড থাকে যেগুলো শরীর থেকে পানি ও লবণ বের করে দেয়। আরেক ধরনের গ্ল্যান্ড আন্ডারআর্ম ও শরীরের অন্যান্য জায়গায় থাকে যেগুলো থেকে দুর্গন্ধ বা ‘বডি ওডর’-এর সমস্যা দেখা যায়। গোসল, ডিওডোরেন্ট, পাউডার, পারফিউমের ব্যবহার ইত্যাদি সবকিছুই শরীরের দুর্গন্ধ থেকে সাময়িকভাবে বাঁচার উপায়। এসব ব্যবহারের কিছুক্ষণ পর পর্যন্ত ফ্রেশ লাগলেও তারপর যেই কে সেই! দীর্ঘমেয়াদে শরীরের দুর্গন্ধ দূরে রাখতে জেনে নিন ৫টি অতি সহজ টিপস।

১. কোলন

ট্রয়লেট্রিজের মধ্যে কোলনের ব্যবহার বেশ ভালোমাত্রায় প্রচলিত। শরীরের দুর্গন্ধ দূর করতে এর ব্যবহার একটু অপ্রচলিতই বটে। গোসলের পানিতে মেশাতে পারেন কোলন। অথবা গোসলের পর এক মগ পানিতে কয়েক ফোঁটা কোলন মিশিয়ে গায়ে ঢেলে দিন। দিনভর থাকবেন ফ্রেশ। গায়ে দুর্গন্ধও হবে কম।

গায়ের মতো চুলও গন্ধ হয়ে যায় ঘামের কারণে। চটজলদি চুলের গন্ধ কমাতে পরিষ্কার কাপড়ে একটু কোলন ঢালুন। এই কাপড় দিয়ে চিরুনি বা ব্রাশ মুছে নিন এবং চুল আঁচড়ে নিন। চুলের তেল ও ময়লা পরিষ্কার হয়ে যাবে এবং চুলে ভালো গন্ধও হবে।

২. আলু

ভাবছেন আলু কী করে শরীরের দুর্গন্ধ দূর করবে? খাবার হিসেবে অত্যন্ত জনপ্রিয় এ সবজিটি ত্বকের ময়লা দূর করতেও সমানতালে ব্যবহার হয়। একইভাবে এটি কাজ করে দুর্গন্ধের বিরুদ্ধেও। আলুর পাতলা স্লাইস আন্ডারআর্মে ধীরে ধীরে ঘষতে থাকুন। এতে গন্ধও দূর হবে, পরিষ্কারও থাকবে।

৩. ফিটকারি

জীবাণুনাশক হিসেবে ফিটকারির ব্যবহার চলে আসছে সেই সুদূর অতীত থেকে। পানিশোধন বলুন আর কেটে গেলে রক্তপাত বন্ধ বলুন, ফিটকারি তুলনাহীন। গোসলের পানিতে মিশিয়ে নিন ১ চা চামচ ফিটকারির গুঁড়া। এটা আপনার শরীরের দুর্গন্ধ যেমন দূর করবে, তেমনি দিনভর ফ্রেশ থাকতে সাহায্য করবে।

৪. টি ট্রি অয়েল

এসেনশিয়াল অয়েল যুগে যুগে বিভিন্ন সমস্যা সমাধান করতে মানুষ কাজে লাগাচ্ছে। ২ টেবিল চামচ গোলাপজলে ১ টেবিল চামচ টি ট্রি অয়েল মেশান। এই মিশ্রণে তুলা ভিজিয়ে আন্ডারআর্মে লাগান। নিয়মিত ব্যবহারে দুর্গন্ধ সৃষ্টি হওয়ার সুযোগই তৈরি হবে না।

৫. পুদিনাপাতা

টাটকা পুদিনাপাতা ঔষধি ভেষজের তালিকায় রয়েছে একেবারে প্রথমদিকে। শুকনো পুদিনাপাতাও কিন্তু কম উপকারী নয়! পুদিনাপাতা রোদে শুকিয়ে গুঁড়ো করে রাখুন। গোসলের পানিতে পুদিনাপাতার গুঁড়ো মিশিয়ে গোসল করুন। এতে শরীরের দুর্গন্ধ দূর হয়ে আপনি থাকবেন দীর্ঘসময় ধরে ফ্রেশ।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top