মাকে বাঁচাতে বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রের আকুতি

পড়াশোনা শেষ করে ভালো চাকরি নিয়ে দরিদ্র পরিবারের দায়িত্বভার কাঁধে নেওয়ার স্বপ্ন ছিল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মানিক হোসেন রিপনের। সেই লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছিল জীবন। তবে সেই স্বপ্নে এখন বাধার পাহাড় হয়ে দাঁড়িয়েছে মায়ের অসুস্থতা। মানিকের মা মর্জিনা খাতুন (৫২) জরায়ু ক্যানসারে আক্রান্ত। তাঁর বাবা আবদুর রহিম পেশায় ভ্যানচালক। পাবনার চাটমোহর উপজেলার ছাইকোলা ইউনিয়নের কাটেঙ্গা উত্তরপাড়া গ্রামে তাঁদের বাড়ি। মর্জিনার চিকিৎসা করাতে পরিবারটি একবারে সহায়সম্বলহীন হয়ে পড়েছে।

ভারতের কলকাতার সরোজ গুপ্ত ক্যানসার হাসপাতাল অ্যান্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউটের চিকিৎসক জবা বসাকের তত্ত্বাবধানে রয়েছেন মর্জিনা খাতুন। এরই মধ্যে তিনবার ওই হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়েছেন তিনি। চিকিৎসক জানিয়েছেন, মর্জিনা খাতুনের সুস্থ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এ জন্য তাঁকে আরও কয়েকবার কলকাতায় গিয়ে চিকিৎসাসেবা নিতে হবে। এ চিকিৎসার জন্য অন্তত পাঁচ লাখ টাকা প্রয়োজন।

চিকিৎসা খরচ এত টাকা বহনের সামর্থ্য নেই দরিদ্র ওই পরিবারের। তাই কূলকিনারা না পেয়ে মাকে বাঁচাতে সমাজের বিত্তবানদের কাছে সাহায্যের আকুতি জানিয়েছেন পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী মানিক হোসেন।

সাহায্য পাঠানোর জন্য: ০১৭৪৪-৩১০০৬৯৩ (রকেট) ও ০১৭৬৩-৭৪৬০৩৪ (বিকাশ)।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top