বিশ্বজুড়ে মৃত্যুর মিছিল, ওদিকে উহানে বিয়ের ধুম

একেই বোধহয় বলে ‘কারো পৌষ মাস তো কারো সর্বনাশ’। চীনের যে উহান শহর থেকে প্রাণঘাতী নভেল করোনাভাইরাসের উৎপত্তি টানা দুই মাস লকডাউন থাকার পর সেই উহানের লকডাউন প্রত্যাহার হয়েছে গতকাল বুধবার। এরপর শহরটিতে লেগেছে বিয়ের ধুম।

গত বছরের শেষে উহানে প্রাদুর্ভাব শুরুর পর গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা। আক্রান্ত ১৫ লাখের বেশি মানুষ। আক্রান্তদের মধ্যে প্রায় ৮৯ হাজার মানুষ ইতোমধ্যে মারা গেছে। এদিকে চীনের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে নানারকম বিধিনিষেধ প্রত্যাহার হওয়ায় স্বাভাবিক জীবনে ফিরছে মানুষ।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন বৃহস্পতিবারের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, টানা দুই মাসের অবরুদ্ধ দশা কাটার পর উহানের যেসব জুটি প্রাণে বেঁচে গেছেন তারা বিয়ের কাজটা সেরে ফেলতে চাইছেন দ্রুত। তাইতো বিয়ের পিঁড়িতে বসে তারা তাদের এই ‘নতুন জীবনকে’ উদযাপন করছেন।

চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত দৈনিক গ্লোবাল টাইমসের প্রতিবেদন এসব নবদম্পতিকে নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। যেমন গতকাল লকডাউন প্রত্যাহারের পর সেদিনই বিয়ে করেছেন জু লিন। তিনি বলেন, আজ বিশেষ একটি দিন। আমার এবং উহানের জন্য আজ থেকে নতুন এক জীবন শুরু হলো।

গত শুক্রবার উহানের হুবেই প্রদেশের সরকারি কর্তৃপক্ষ বিয়ের নিবন্ধন পুনরায় চালু করে। কিন্তু লকডাউন থাকায় বিয়ের কাজটা সারতে পারছি না অনেকে। অবশেষে গতকাল বুধবার লকডাউন প্রত্যাহার হলে অনেকেই বিয়ের কাজটা সম্পন্ন করতে শুরু করেছে।

উহানে সরকারি নানা অ্যাপ পরিচালনা করে টেক জায়ান্ট আলিবাবার সহযোগী প্রতিষ্ঠান আলি পে। তারা জানিয়েছে, উহানে বিবাহ নিবন্ধনের গতি ৩০০ গুণ বেড়েছে। অ্যাপে ঢুকতে না পারায় অনেকে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে এ নিয়ে অভিযোগও করছে।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top