ঈদের সাজ হোক পরিপাটি ও স্নিগ্ধ

ঈদের সাজ হোক পরিপাটি ও স্নিগ্ধ। রূপচর্চা(Beauty) আর সাজগোজ নিয়ে মেয়েরা সবসময়ই একটা ভাবনার মধ্যে থাকেন। কখন কিভাবে সাজবেন তা নিয়ে চিন্তার অন্ত নেই। রূপচর্চা বা সাজগোজ এমন একটা বিষয়, যা আবহাওয়া, পরিবেশ কিংবা পোশাকের(Dress) ওপর নির্ভর করে ব্যবস্থা নিতে হয়। এখন চলছে গ্রীষ্মকাল। এই ঋতুতে মেয়েরা রূপচর্চা করেন তীব্র গরম আর বৃষ্টির কথা মাথায় রেখেই। তাই এই দুটি বিষয় বিবেচনায় রেখে এই রোজার ঈদে মেদের ঈদের দিনের বিভিন্ন সময়ের রূপচর্চা(Beauty) ও সাজগোজ সম্পর্কে টিপস দিয়েছেন জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা মডেল ও টিউলিপ নেইলস অ্যান্ড স্পা এর স্বত্বাধিকারী বিউটি এক্সপার্ট নিপুণ।

ঈদের আগে অবশ্যই ফেসিয়াল(Facial) করা উচিত। তবে ফেসিয়াল যেনো অবশ্যই আপনার স্কিন এর ধরন অনুযায়ী হয়। এর পাশাপাশি হেয়ার ট্রিটমেন্ট, হেয়ার স্পা, ম্যানিকিউর, পেডিকিউর, হেয়ার কাট(Haircut), হেয়ার কালার – রূপচর্চা বা সাজগোজের এসব আনুষঙ্গিক বিষয়গুলো করে নিতে হবে। এতে আপনি ঈদের সাজে আরও বেশি আকর্ষণীয় হয়ে উঠবেন। এখানে আরও একটি কাজ করতে হবে – আপনার হাতের আঙ্গুলগুলো আরও সুন্দর, রঙিন আর আকর্ষণীয় করে তোলার জন্যে নেইল পলিশ, নেইল পেইন্ট দিয়ে নখগুলো সাজিয়ে নিতে হবে। এতে আপনি আরও আকর্ষণীয় হয়ে উঠবেন।

ঈদের সাজ

সকাল
ঈদের দিন সকালের সাজটা অবশ্যই হালকা টোনের মেকাপ নেবেন। হালকা ফেস পাউডার(Face powder) মেখে ফেস সাজাতে হবে। হালকা একটু কাজল, একটু লিপস্টিক(Lipstick), চিকন আইলাইনার দিয়ে চোখ দুটো সাজিয়ে নিয়ে আপনি আরামসে আইব্রো দুটো হালকা বাদামী রঙে সাজাতে পারেন। চুল(Hair) একদম টেনে বাঁধতে পারেন। আর ওয়েদার অনুযায়ী সুতি কাপড়ের সালোয়ার কামিজ পরতে পারেন। এতে এই গরমে আরাম পাবেন।

ঈদের দিন দুপুর
দুপুরে সবার বাসাতেই কম বেশি মেহমান আসেন। খাওয়া দাওয়া করেন। তাই দুপুরের মেকাপটা সকালের চেয়ে ভারী হতে হবে। ঠোঁটে গোলাপী বা বাদামী রঙের লিপস্টিক(Lipstick) লাগালে ভালো লাগবে। এর সঙ্গে হালকা একটু লিপ গ্লস লাগাবেন। চিরুনি দিয়ে চুলগুলো ভালো করে আচরিয়ে নিয়ে আঁটোসাঁটো করে বেঁধে একটা বেণী করে নিতে পারেন। এতে আপনাকে আরও আকর্ষণীয় লাগবে। আরামও পাওয়া যাবে। হালকা কোন রঙের কামিজ কিম্বা কুর্তা পরলে ভালো লাগবে।

ঈদের দিন বিকেল
বিকেলে রোদের তীব্রতা কমে আসে। তখন পোশাক হিসেবে শাড়িই প্রাধান্য পাবে। আপনার শাড়ি হতে পারে মসলিন, সুতি ব্লকের অথবা সুতি কোটা শাড়ি। শাড়ির সঙ্গে অবশ্যই আপনাকে ভারী মেকাপ(Makeup) নিতে হবে। মেকাপ হবে দুই টোনের। অরেঞ্জ ব্লাশ এর হাইলাইটস ব্যবহার করতে পারেন। চোখ দুটো কিন্তু আই শ্যাডো দিয়ে আঁকবেন। ম্যাট নয় অবশ্যই বিকেলের সাজে গ্লস লিপস্টিক ব্যবহার করবেন। চুলে ঝুঁটি বেঁধে নিতে পারেন কিম্বা খোঁপা করে নিতে পারেন।

ঈদের রাত
রাতের বেলা সাধারণত জমকালো মেকাপ(Makeup) নিতে হয়। আর পোশাক হিসেবে অবশ্যই শাড়ি। ঈদের দিন রাতেও তাই করতে হবে। রাতের চাকচিক্য মেকাপের সঙ্গে তাই সিফন শাড়ি, সিল্ক শাড়ি কিম্বা কাতান টাইপের শাড়িই ভালো যাবে। এতে আপনি অনেক আকর্ষণীয় হয়ে উঠবেন। রাতের মেকাপ নিতে গিয়ে অবশ্যই মুখের বেইজটা ভারী হতে হবে। সেই সঙ্গে অবশ্যই ব্লাশ, হাইলাইটস ব্যবহার করতে হবে। সিমারও ব্যবহার করতে পারেন। আইলাইনার দিয়ে অনেক মোটা করে কাজল লাগাবেন। মেরুন অথবা বাদামী রঙের লিপস্টিক(Lipstick) আপনাকে অনেক বেশি সুন্দর করে তুলবে। আপনার আই শ্যাডোতে যেনো কপার ,রোজ গোল্ড আর ব্রাউন কালারের ছোঁয়া থাকে। চোখ জোড়াকে অনেক বেশি মোহনীয় করে তুলতে চাইলে এক্সট্রা আইলাইস ব্যবহার করতে পারেন। চুলে তখন খোঁপা বাঁধতে পারেন। অনেক সুন্দর লাগবে আপনাকে।

তো হয়ে গেলো ঈদের দিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত আপনার চারবেলার সাজগোজ। আশা করছি এভাবে করলে আপনাকে অনেক বেশি আকর্ষণীয় লাগবে। আরও বিস্তারিত জানতে চাইলে বা একদম এভাবেই সাজতে চাইলে আসতে পারেন বনানীতে অবস্থিত আমার “টিউলিপ নেইলস অ্যান্ড স্পা” তে। সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা, ঈদ মুবারাক।

সুস্থ থাকুন, নিজেকে এবং পরিবারকে ভালোবাসুন। আমাদের লেখা আপনার কেমন লাগছে ও আপনার যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তবে নিচে কমেন্ট করে জানান। আপনার বন্ধুদের কাছে পোস্টটি পৌঁছে দিতে দয়া করে শেয়ার করুন। পুরো পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top