যে ৬ টি কাজে অন্যের চোখে নিজেকে করে তুলছেন চরম বিরক্তিকর মানুষ

একজন মানুষের ব্যক্তিত্ব তার বাহ্যিক সৌন্দর্য নয় বরং তার অন্যান্য সকল বৈশিষ্ট্যের উপর বিবেচনা করেই নির্ধারণ করা হয়। আকর্ষণীয় ব্যক্তিত্বের অধিকারী মানুষের চালচলন, আচার আচরণ এবং জীবন যাপনের সব দিকেই দেখা যায় ব্যক্তিত্বের ছাপ। কিন্তু এর উল্টোটাও দেখা যায় অনেক মানুষের মধ্যে। ‘কমন সেন্স’ যাদের মধ্যে একেবারেই কম তারাই নিজেদের কাজের মাধ্যমে সকলের চোখে হয়ে উঠেন বিরক্তিকর মানুষ। তাই কোনো কাজ করার আগে নিজেই বিবেচনা করুন, আপনার কাজে অন্যের বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে না তো।

১) ফোনে জোরে জোরে কথা বলা

ফোনে জোরে চেঁচিয়ে পুরো দুনিয়ার মানুষকে জানান দিয়ে কথা বলার বিষয়টি সকলের চোখেই বেশ বিরক্তিকর। বিশেষ করে যদি তা পাব্লিক প্লেস যেমন বাস, রাস্তাঘাট, অফিসের মতো স্থানে হয়ে থাকে। তাই নিজের গলার স্বরের দিকে খেয়াল রাখুন।

২) অতিরিক্ত পারফিউম ব্যবহার

অন্যতম বিরক্তিকর আরেকটি কাজ হচ্ছে অতিরিক্ত পারফিউম ব্যবহার করা। আপনার অতিরিক্ত পারফিউম অন্যের মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে না তো? বিষয়টিতে অবশ্যই গুরুত্ব দিন।

৩) ঘাম ও পায়ের দুর্গন্ধ

অতিরিক্ত ঘাম হওয়া এবং ঘামের কারণে শরীরের দুর্গন্ধ এবং পা ঘেমে পায়ের দুর্গন্ধ অনেক বিরক্তিকর একটি বিষয়। এবং অনেকের কাছে এটি বেশ বিব্রতকরও বটে। এই সমস্যা দূর করতে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

৪) অফিসের লাঞ্চে উৎকট গন্ধযুক্ত খাবার

অফিসের লাঞ্চে অনেকেই এমন সুগন্ধ যুক্ত খাবার নিয়ে আসেন যার ফলে পুরো অফিসেই গন্ধ ছড়িয়ে যায়। এই ব্যাপারটি আপনার কাছে খুব বেশি অস্বাভাবিক মনে না হলেও একটি কর্পোরেট অফিসে বিষয়টি খুবই বিব্রতকর। এই কাজটি আপনাকে বিরক্তিকর মানুষের খাতায় ফেলে দিচ্ছে অন্যের চোখে।

৫) অন্যের কাজে সব সময় নাক গলানো

অন্যের কাজে নাক না গলিয়ে থাকতে পারেন না এমন ব্যক্তির সংখা নেহায়েত কম নয়। কিন্তু এই ধরণের মানুষ খুবই বিরক্তিকর হয়ে থাকেন। অন্যায় হতে না দেখলে অন্যের কাজে গিয়ে কথা বলার কোনই প্রয়োজন নেই। উপযাচক হয়ে কাউকে পরামর্শ দিতে যাওয়াও বিরক্তিকর।

৬) মোবাইল ফোনের বিশ্রী ও উচ্চমাত্রার রিংটোন

নিজে না হয় শখ করে মনের মতো গানের রিংটোন দিচ্ছেন আপনার ফোনে। কিন্তু একটিবারও কি ভেবেছেন এর সুর অন্যের কাছে খুবই বিরক্তিকর হতে পারে। যদি পছন্দের গানই রিংটোন দেন তাহলে বাসা থেকে বের হওয়ার সময় ফোনটি অবশ্যই ভাইব্রেশন মোডে নিন। অন্যের চোখে আর বিরক্তিকর হয়ে উঠবেন না।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top