সম্পর্কের যে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো জেনে রাখা উচিত সকলের

ভালোবাসার সম্পর্ক হোক বা দাম্পত্যের সম্পর্ক হোক না কেন একে অপরের প্রতি সম্মান, দুজন দুজনকে বুঝতে পারা, ছাড় দেয়ার মনোভাব রাখা, দুজনের মতামতের অধিকার এবং দায়িত্ব ভাগ করে নেয়ার ইচ্ছার মাধ্যমেই মজবুত ও সুখের হয়। কিন্তু অনেকেই কিছু ব্যাপার একেবারেই ভুলে যান, ভাবেন সম্পর্ক জড়ানো পর্যন্তই কাজ করতে হয় সম্পর্কে জড়িয়ে যাওয়ার পর কিছু না করলেও সম্পর্ক ঠিক থাকে। কিন্তু সম্পর্ক গড়ে তোলার চাইতে সম্পর্ক ধরে রাখা অনেক বেশী কঠিন। তাই সম্পর্ক বিষয়ে কিছু গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার সকলেরই জেনে রাখা জরুরী।

১) সঙ্গীর সাথে সমস্যা হলে মাথা গরম করা নয়

সম্পর্কে সঙ্গীর সাথে সমস্যা হতেই পারে, সব সম্পর্কেই এটি হয়ে থাকে। কিন্তু সমস্যার সময় আপনি যতো রেগে যাবেন এবং মাথা গরম করবেন ততোই সমস্যা আরও বাড়তে থাকবে। বরং আপনার মাথা গরমের কারণে ছোট সমস্যাটিও বড় আকার ধারণ করতে পারে। তাই মাথা গরম করা চলবে না একেবারেই।

২) সঙ্গীকে বোঝার চেষ্টা

সম্পর্ক মজবুত করার অন্যতম প্রধান উপায় হচ্চে সঙ্গীকে বোঝার চেষ্টা করা। সঙ্গী কি চান, কি চিন্তা করেন তা সম্পর্কে যদি ধারণা থাকে তাহলে দুজনের মধ্যেই সুসম্পর্ক থাকা সম্ভব। তাই চেষ্টা করে হলেও সঙ্গীকে বোঝার চেষ্টা করুন। মোট কথা সঙ্গীকে তার প্রাপ্য সম্মান এবং ভালোবাসা দেয়ার জন্যই সঙ্গীকে বুঝুন। এতে সম্পর্ক আরও মজবুত হবে।

৩) কম্প্রোমাইজের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করুন

কেউই পৃথিবীতে পারফেক্ট হন না। সবার মধ্যেই কমবেশি সমস্যা রয়েছে। কিন্তু ভালোবাসার মানুষটির এই কমতিটা ছাড় দেয়ার মনোভাব থাকা উচিত দুজনের মধ্যেই। আপনি যদি ভালোবেসে থাকেন তাহলে নিজেকে কম্প্রোমাইজের জন্য প্রস্তুত করে নিন। কারণ আপনার সঙ্গীও আপনার জন্য নিজেকে একইভাবে প্রস্তুত করছেন। তার জন্য জিনিসটি একতরফা করে ফেলবেন না।

৪) ছোটোখাটো বিষয়ও অবহেলা করবেন না

সম্পর্ক গভীর করার জন্য অনেক বড় কিছু করার প্রয়োজন পড়ে না। বরং ছোট ছোট বিষয়ের মাধ্যমেই দুজনের মধ্যে ভালোবাসার সম্পর্ক অনেক বেশী গভীর হয়। তাই ছোট ছোট বিষয়গুলো এড়িয়ে চলবেন না। বরং এগুলোকেই বেশী গুরুত্ব দেয়ার চেষ্টা করুন তারপর বড় কিছুর প্রতি নজর দিন।

৫) কথা বলা বন্ধ করবেন না

যতো সমস্যাই হোক না কেন সম্পর্কে কখনোই কথা বলা বন্ধ করে দেবেন না বা দূরে সরে গিয়ে বসে থাকবেন না। কথা বন্ধ করা কোনো সমস্যার সমাধান নয়। বরং ঠাণ্ডা বাথায় বুঝিয়ে কথা বলে সমস্যার সমাধান করাটাই ভালো। তবে যদি দেখেন রাগ উঠে যাচ্ছে তাহলে একটু শান্ত হয়ে যান এবং পরে কথা বলুন।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top