ভারতীয় টিভি চ্যানেলের সম্প্রচার বন্ধ করলো নেপাল

দিন যত যাচ্ছে ভারতের সঙ্গে নেপালের উত্তেজনা ততই বাড়ছেই। এমন পরিস্থিতির মধ্যেই আরও কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করল নেপাল সরকার। গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে দেশটিতে ভারতীয় সব টিভি চ্যানেল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

নেপালের প্রাক্তন উপ-প্রধানমন্ত্রী ও নেপাল কমিউনিস্ট পার্টির (এনসিপি) মুখপাত্র নারায়ণ কাজি শ্রেষ্ঠা অভিযোগ তুলেছিলেন যে ভারতীয় মিডিয়ায় তাদের দেশের সরকার ও প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন প্রোপাগান্ডা চালাচ্ছে। এর কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই এই পদক্ষেপ নিল নেপাল সরকার।

বিতর্কিত লিমপিয়াধুরা-কালাপানি-লিপুলেখ অঞ্চল নিয়ে ভারত ও নেপালের সম্পর্ক গত কয়েকদিনে অবনতি হয়েছে। এমনকি সীমান্তেও উত্তেজনা বাড়ছিল। এর মধ্যে নেপালের এমন সিদ্ধান্ত নিলো।

জানা গেছে, এখন থেকে নেপালে শুধুমাত্র ভারতের রাষ্ট্রীয় টেল্ভিশন দূরদর্শন চ্যানেলের খবর দেখা যাবে। এছাড়া কোনও খবরের চ্যানেল সেখানে চলবে না।

সম্প্রতি নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি’র প্রধান উপদেষ্টা বিষ্ণু রামাল বলেছিলেন, ভারতের সংবাদ মাধ্যমে নেপালের সরকার ও প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন ও আপত্তিজনক খবর দেখানো হচ্ছে। নেপালের প্রধানমন্ত্রী আবার দাবি করেছিলেন, তাকে উৎখাত করার জন্য ভারতে গোপন বৈঠক হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার নেপালের কেবল অপারেটর মেগা ম্যাক্স টিভি’র ধ্রুব শর্মা এ এন আই কে জানিয়েছেন, সরকারে নির্দেশে অনির্দিষ্টকালের জন্য নেপালে ভারতীয় খবরের চ্যানেলের সম্প্রচার বন্ধ থাকবে।

ইতোমধ্যে নেপালের পার্লামেন্টে সংবিধানের দ্বিতীয় সংশোধনী সর্বসম্মতিক্রমে পাস হয়েছে। তাতে নতুন মানচিত্র অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। ভারতের একাধিক ভূখণ্ড সেখানে নিজেদের বলে দাবি করেছে নেপাল। এই নিয়ে দুদেশের মধ্যে কূটনৈতিক উত্তেজনা রয়েছে।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top