পুলিশ কর্মকর্তাকে লাথি মারলেন থানা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক

পল্লবী থানা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানার বিরুদ্ধে পুলিশ সার্জেন্টকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় পল্লবী থানায় একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন।
মারধরের শিকার পুলিশ জানায়, মিরপুরের কালসী পুলিশ বক্সের কাছাকাছি এলাকায় বসুমতি বাস নষ্ট হয়ে যায়। সে বাসটিকে রাস্তা থেকে সরানোর সময় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা গালমন্দ করতে থাকে ও পুলিশের সাথে বাকবিতণ্ডায় লিপ্ত হয়। এক পর্যায়ে পুলিশের সাথে ধস্তাধস্তি ও তাকে মারধর করে যুবলীগ নেতা। পরবর্তীতে দলবল নিয়ে পুলিশ বক্সে হামলা চালায় ও সার্জেন্ট ফরহাদকে দ্বিতীয় দফায় মারধর করে।
এ ঘটনায় পল্লবী থানায় মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী সার্জেন্ট ফরহাদ। পল্লবী থানার ওসি এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে আইনি পদক্ষেপ নেয়ার কথা জানায়। তবে স্থানীয় যুবলীগ নেতা জুয়েলের বাসায় ও ফোনে যোগাযোগ করেও তার কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
ডিএমপি পল্লবী জোনের সার্জেন্ট ফরহাদ বলেন, তার সাথে আমার ধস্তাধস্তি হয়। পল্লবী থানার যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল দলবল নিয়ে পুলিশ বক্সে হামলা চালায়। এতে স্যারসহ আমি আহত হই। তারপর দ্বিতীয় দফায় আমাকে লাথি ও ঘুষি দিয়েছে।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top