শারীরিক সম্পর্কের পর সে এড়িয়ে চলতো, এখন আরেকজনের প্রেমে পড়েছি…

আজ থেকে এক বছর আগে একজনের সাথে আমার পরিচয় হয়। অতঃপর সম্পর্ক। কিন্তু ও আমাকে ভালোবাসতো না। ওর সাথে আমার শারীরিক সম্পর্কও হয়। এটা হওয়ার পর থেকেই ও আমাকে এড়িয়ে চলত। ওকে খুব বেশি ভালোবেসেছিলাম। তাই ও আমাকে যতবার দেখা করার কথা বলত আমি যেতাম, এই ভেবে যে সে হয়ত আমাকে ভালোবাসবে। কিন্তু আমার ধারনা ভুল ছিলো।

কয়েক মাস আগে থেকে একজনের সাথে আমি কথা বলি। সে আমাকে খুব ভালোবাসে। সে জানে আমার আগে কোন সম্পর্ক ছিলোনা, আমি কারো সাথে শারীরিক সম্পর্ক করিনি। কিন্তু তার ভেতর সন্দেহ অনেক বেশি। সে বলে দেশে আসার পর সে ডাক্তার দেখাবে। উল্লেখিত, সে দেশের বাইরে থাকে। কয়েক মাস পর দেশে আসবে বিয়ে করার জন্য।

তার প্রতি আমি সিরিয়াস। তাই দুই মাস আগে থেকেই আগের জনের সাথে কথা বলা বাদ দিয়ে দিয়েছি। এসব করে তো আর জীবন চলবে না। এখন আমার প্রশ্ন হল, আমার বিয়ে হলে সে কি বুঝে ফেলবে নাকি যে কারো সাথে আমি কিছু করেছি? আমি খুব চিন্তায় আছি। দয়া করে সমাধান দিন। আমি তাকে হারাতে চাইনা।

পরামর্শ :

মিথ্যা বলে সম্পর্ক করা কেবল অন্যায়ই নয়, রীতিমত প্রতারণা করা। এবং সবচাইতে বড় ব্যাপার হচ্ছে, এতে নিজের পায়ে নিজেই কুড়াল মারা হয়। হ্যাঁ, আপনি যে পূর্বে শারীরিক সম্পর্ক করেছেন সেটা আপনার বর্তমান প্রেমিক অবশ্যই বুঝতে পারবেন। এবং আপনার কোনভাবেই উচিত হচ্ছে না মিথ্যা বলে তাঁর সাথে সম্পর্কে জড়ানো।

দ্বিতীয়ত, প্রথম ছেলেটি আপনাকে ভালবাসত না। তারপরও তাঁর সাথে আপনি শারীরিক সম্পর্ক করতে গেলেন কেন? তাছাড়া তাঁর সাথে সম্পর্ক ভেঙেছে মাত্র দুই মাস, এর মাঝেই আরেকজনের ব্যাপারে এত সিরিয়াস হয়ে গিয়েছেন… ইত্যাদি সমস্ত কিছু মিলিয়েই পুরো ব্যাপারটা কেমন ঘোলাটে লাগছে আমার কাছে। মনে হচ্ছে আপনার বর্তমান প্রেমিকেরও তাই লাগবে। আরও একটা ব্যাপার এই যে, যে মানুষ ডাক্তারি পরীক্ষা করিয়ে দেখবে আপনি ভার্জিন কিনা এবং তারপর আপনাকে বিয়ে করবে, সে কি আদৌ আপনাকে ভালোবাসে? অন্তত আমার কাছে মনে হচ্ছে ব্যাপারটা খুবই অসম্মানজনক।

শেষ কথা, ডাক্তারি পরীক্ষা করাক বা না করার, বুঝতে তিনি অবশ্যই পারবেন। তাই আমার মনে হয় সত্য বলে দেয়াই সমীচীন। এতে ভবিষ্যতে মিথ্যাবাদী হবার হাত থেকে বেঁচে যাবেন আপনি।

 

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top