আমার গায়ের রঙটাই স্বামীর সবচাইতে বড় সমস্যা…

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন জানিয়েছেন নিজের সমস্যার কথা।

“আমার বয়স এখন ২৪। এসএসসি পরীক্ষার পর আমার বাবার এক বন্ধুর ছেলের সাথে আমার কথা শুরু  হয়। কথা বলার আগেও সে আমাকে ২/৩বার দেখেছে যখন আমি ক্লাস ৬ বা ৭ এ পড়ি। সে আমার চেয়ে ১১ বছরের বড়।

ফোনে কথা বলা কালীন সময়ে সে আমাকে প্রপোজ করে। আমি রাজী হয়ে যাই। আমরা দুজন আলাদা জেলায় থাকি। কিন্তু আমাদের গ্রাম একই জায়গায়। ও আমার এখানে মাঝে মধ্যে দেখা করতে আসতো। এভাবে প্রায় ২ বছর পার হয়ে যায়। ও মাঝে মধ্যে বলত দেশের বাইরে চলে যাবো। আবার বলত, “আমাদের সম্পর্ক না থাকলে কষ্ট পাবে না তো”।

আমি যখন HSC সেকেন্ড ইয়ারে উঠি তখন ও হঠাৎ করে ওর পরিবারের ইচ্ছেয় বিয়ে করে ফেলে। মেয়েটা কানাডা থাকে। ও বলে ওর পরিবার জোর করে ওর বিয়ে দিয়েছে। মেয়েটার নাকি চরিত্র ভালোনা। আবার বলত মেয়েটা নাকি অনেক সুন্দর। এখানে বলে রাখি যে বিয়ে করার পরও সে আমার সাথে যোগাযোগ রেখেছিলো। কিন্তু আমি আর রাখতে চাইনি। অনেক চেষ্টা করেছি ভুলে যাওয়ার। কিন্তু পারিনি। ও আমাকে বলেছিলো ওই মেয়েটা কানাডায় চলে গেলেও সে যাবেনা। ও আমার সাথেও কথা বলত, ঐ মেয়েটার সাথেও কথা বলত। মেয়েটা ওকে কানাডা নেয়ার জন্য কাগজপত্র পাঠায়। ও আমাকে বলে যে সে কাগজগুলো সে ছিঁড়ে ফেলেছে, ও যাবেনা। আমাকে বিয়ে করবে।

আমি এসব বিশ্বাস করি। এক বছর পর পারিবারিকভাবে আমাদের বিয়ে হয়। এখন বিয়ের পর আমি বুঝতে পারি যে সে আমাকে বেশি পছন্দ করেনা। সে আমার চেয়ে দেখতে ভালো এবং ফর্সা। আর আমি দেখতে শ্যামলা। এ নিয়ে সে আমায় অনেক রকমের কথা বলে। আবার বলে যে তোমার জন্য আমি অন্য মেয়ের কাছে যাইনি। আমি তোমাকেই ভালোবাসি। কিন্তু আমি বুঝি আমার গায়ের রঙটাই ওর কাছে আসল সমস্যা।

বিয়ের এক বছর পরই আমাদের একটি সন্তান হয়। তার বয়স এখন প্রায় ৩ বছর। আমার স্বামী সব দায়িত্বই পালন করে। কিন্তু তারপরও আমার মনে হয় সে আমাকে পছন্দ করেনা। কারণ সে যেমন মেয়ে পছন্দ করে আমি দেখতে তেমন না। আমার খুব কষ্ট লাগে। এর সমাধান কি আমার জানা নেই। দয়া করে আমাকে একটা সমাধান দিন। আমি আমার স্বামীকে অনেক ভালোবাসি। সে আমাকে ধোঁকা দেওয়ার পরও সব মেনে নিয়ে তাকে বিয়ে করেছি।”

পরামর্শ:
আপনাকে কী পরামর্শ দিব আমি বুঝতে পারছি না আপু। আপনি আরেকটি মেয়ের ঘর ভেঙে নিজের সংসার সাজিয়েছেন, কষ্ট তো আপনাকে পেতেই হবে। ছেলেরা স্ত্রীকে খারাপ বলার জন্য খুব চট করেই বলে দেয় যে মেয়েটির চরিত্র খারাপ। কিন্তু সত্য এটাই যে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই কথাটি সত্য হয় না।

যাই হোক, ছেলেটি আপনার সাথে প্রতারণা করার পরও আপনি সম্পর্ক রেখেছেন। সে আরেকজনকে বিয়ে করার পরও সেই সংসার ভেঙে বিয়ে করেছেন, এগুলো আপনার নিজেরই করা ভুল। আমি জানি না এই ভুলে আদৌ কোন সমাধান আছে কিনা। কারণ আপনার গায়ের রঙই যদি স্বামীর সমস্যা হয়ে থাকে, তাহলে তো আপনার কিছুই করার নেই। নিজের গায়ের রঙ আপনি পাল্টে ফেলতে পারবেন না। তাই না?

আপনার এখন কিছুই করার নেই, পরিস্থিতি যেমন আছে তেমন মেনে নিয়ে সংসার করুন। বেশী ঝগড়াঝাঁটি করতে যাবেন না, তাহলে দেখা যাবে স্বামীর মন অন্যদিকে ঘুরে গেছে। আর গায়ের রঙ শ্যামলা হলেই মানুষ অসুন্দর হয় না। আপনি নিজে যেমন আছেন, নিজেকে সেভাবেই গ্রহণ করতে শিখুন। আস্তে আস্তে স্বামীও গ্রহণ করবেন।

 

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top