এই বিয়ে হলে আমার ক্ষতি হবে, আমি মারা যেতে পারি…

প্রশ্নটি আমাদের ফেসবুক পেজে করেছেন : নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন তরুণী

আমি একজনকে ভালোবাসি। আমাদের সম্পর্ক কম দিনের ছিলো। আমাদের একটি বিয়ে বাড়িতে দেখা হয়। তারপর আমাদের ফেসবুকে কথা হতে থাকে। পরে ফোনে কথা হয়, এসএমএসে কথা হত সারাদিন। কিন্তু তারপর আর দেখা করার সুযোগ হয়ে উঠেনি। সে যখন আমাকে প্রোপোজ করে আমি ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম যদি সম্পর্কতে বাড়ি থেকে আপত্তি করে তা ভেবে। কিন্তু ও আমাকে বুঝায় যে যতই আপত্তি করুক ও আমাকে ছাড়তে পারবেনা।

ছেলেটা আমদের আত্মীয়ের মধ্যেই পড়ে। পরিবারের সম্মানের ভয়ে আমি এগুতে চাইনি, কিন্তু পরে ওকে খুব বিশ্বাস করে ওর প্রোপোজাল এক্সেপ্ট করি। ৪ মাস খুব ভালো ছিলাম। আমি ওকে সব কথা বলতাম। কোন মিথ্যা কথা বলিনি কখনো। আমার প্রাক্তন প্রেমিক সম্পর্কেও বলেছিলাম। তখন ও কোন সমস্যা করেনি। একদিন সে আমাকে বলে ওর বাড়িতে রিলেটিভদের মধ্যে বিয়ে হলে বউ মারা যায়, তাই ও চিন্তায় আছে রিলেশনটা কীভাবে এগিয়ে নিয়ে যাবে। কিন্তু কয়েকদিন সময় ও নিজেই সব ঠিক করে নেয়।

তারপর আমি আমার বাড়িতে মাকে জানাই। মা কোন আপত্তি করেননি, আর বাড়ির কারোর কোন আপত্তি ছিলনা। আমার বাড়িতে জানানোর পর ওকে সেটা বলতে ও আমাকে বলত এখনই জানানোর দরকার ছিলোনা। তার কিছুদিন পর ওর মাসি মারা যান আর তারপর ও আমায় বলে এই সম্পর্কতে ও থাকতে পারবেনা। কারন ওদের বাড়ি থেকে এই সম্পর্ক মানবেনা। আমরা ওদের আত্মীয়দের মধ্যে পড়ি। আর এই বিয়ে হলে আমার ক্ষতি হবে, আমি মারা যেতে পারি।

অনেক চেষ্টা করি সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার কিন্তু পারিনি। ও আমাকে অনেক বাজে কথা শোনায়, আমি ওকে ডিস্টার্ব করছি বলে। অনেক অপমান করে, পরে আমি আর কথা বলিনি। কিন্তু ওকে আমি ভুলতে পারছিনা, অনেক চেষ্টা করেছি। গত ২ বছরেও এই ৫ মাসের সম্পর্কটা ভুলতে পারিনি। আমি ওকে ভুলতে চাই, ঘৃণা করতে চাই। এই কষ্ট আমি আর নিতে পারছিনা। আমাকে সাহায্য করুন, নাহয় নিজেকে শেষ করে দিতে হবে।

 

পরামর্শ

আমি বুঝতে পারছি না, ব্যাপারটা এত সিরিয়াসলি নেয়ার কী হলো! যে ছেলে তোমাকে কখনো ভালোবাসেনি, মিথ্যা বলে তোমাকে প্রতারনা করেছে, তাঁর জন্য মরে যাওয়ার কথা বলো। ছিঃ! আর যে মা বাবা বুকে আগলে এত বছর মানুষ করেছেন, তাঁদের ভালোবাসা কিছুই না? আমি বুঝতে পারি না আজকাল ছেলেমেয়েরা যে ধোঁকা দিয়ে চলে গিয়েছে, তাঁর জন্য এত ব্যাকুল কেন।

দেখো আপু, সিনেমার রঙিন দুনিয়ে থেকে বের হয়ে এসে বাস্তবতায় তাকাও। ছেলেটি তোমাকে কখনোই ভালোবাসেনি। তাঁর জন্য তুমি কেবলই এক টাইম পাস ছিলে। সে আরেকজনকে পেয়েছিল, তাই তোমাকে ছেড়ে দিয়েছে। অহেতুক এই ছেলের জন্য মন খারাপ করে তুমি নিজে নিজেকে অপমানিত করছো আর নিজের পিতা মাতাকেও। আমি তোমাকে কোন সাহায্য করতে পারবো না। ইনফ্যাকট কেউ তোমাকে কোন সাহায্য করতে পারবে না। এই প্রতারকের জন্য কষ্টে ভোগার বদ অভ্যাস থেকে বের হতে হবে তোমার নিজেকেই।

 

 

 

 

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top